মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

সিপিএম নেতার বাকি দেহাংশ উদ্ধার



পুবের কলম, বীরভূম: বীরভূমের নানুরের সিপিএম নেতার মুণ্ডসহ অবশিষ্ট দেহাংশ উদ্ধার করল পুলিশ। গত সোমবার দুবরাজপুর থানা এলাকা থেকে আগেই বাকি অংশ উদ্ধার হয়েছিল। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আগে যেখানে উদ্ধার হয়েছিল তার থেকে কিছুটা দূরে মঙ্গলবার বাকি দেহাংশ উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত, বন্ধুর মেয়ের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জেরে গত শুক্রবার নিখোঁজ হয়ে ছিলেন বীরভূমের নানুরের সিপিএম নেতা সুভাষচন্দ্র দে। তিনি বাসাপাড়া শাখা সম্পাদক তথা সূচপুর গণহত্যার অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন। যদিও পরে উচ্চ আদালতের নির্দেশে তিনি বেকসুর খালাস পান। কিন্তু এক্ষেত্রে তিনি বন্ধুর মেয়ে   সোনালী বিবির সঙ্গে বিবাহবর্হিভূত সম্পর্ক ছিলেন বলে অভিযোগ। 

ওই গৃহবধূর শ্বশুরবাড়ি খোঁজমোহাম্মদপুরে যান সিপিএম নেতা। তাঁর বাড়িতেই ওই সিপিএম নেতার সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলে তাঁর স্বামী মতিউর। ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁকে লোহার রডের বারি মেরে খুন করে।

তারপর তার দেহ তিন টুকরো করে দুটি ভিন্ন স্থানে ফেলে আসে।  ওই গ্রামের এক নির্জন এলাকায় গত সোমবার মাথা এবং পা বাদ দিয়ে বাকি শরীরের অংশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওদিকে গ্রেফতারের পর মতিউর পুলিশকে জানায় মাথা এবং পা অজয় নদের ফেলে এসেছে যদিও সেখান থেকে কোন কিছু উদ্ধার হয়নি। পুলিশকে বিভ্রান্ত করতেই নদীর জলে মাথা এবং পা  ফেলার কথা তিনি বলেছিলেন। ১২ দিনের পুলিশি হেফাজত নেওয়ার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এদিন গতকালের উদ্ধার হওয়া ঘটনাস্থল থেকে ২০০মিটার দূরে ধানক্ষেত থেকে থেকে বাকি অংশ উদ্ধার হয়।

বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিং জানান," প্রথমে নদীর জলে দেহের বাকি অংশ  ফেলার কথা বললেও তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ওই গ্রামের মাঠ থেকে মাথা এবং পা উদ্ধার হয়েছে"।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only