মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯

সাংসদ নুসরত জাহানের স্বামীকে প্রতারণা, অভিযুক্ত মোদির রাজ্য গুজরাতের বাসিন্দা

Tor
চিন্ময় ভট্টাচার্য

বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহানের স্বামী শিল্পপতি নিখিল জৈনকে প্রতারণার অভিযোগে গুজরাত থেকে গ্রেফতার করা হল এক ব্যক্তিকে। ধৃত ব্যক্তির নাম ললিত বাহাদুর দিলবাহাদুর রানা। বছর ৪১-এর ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নিখিল জৈনকে এয়ারটেল ভিভিআইপি নম্বর পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ৪৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।
শিল্পপতি নিখিল জৈন এক শাড়ি সংস্থার মালিক। তিনি কলকাতা পুলিশের সাইবার অপরাধদমন শাখার কাছে অভিযোগে জানান, প্রতারক তাঁর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করেছিল। তাঁকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, এয়ারটেল ভিভিআইপি নম্বর পাইয়ে দেবে। এই শর্তে তাঁকে এক বেসরকারি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে ৪৫ হাজার টাকা জমা দিতেও বলেছিল। তিনি সেই কথামতো ওই টাকা প্রতারকের বলে দেওয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা দিয়েছিলেন বলেই শিল্পপতি নিখিল জৈন পুলিশকে জানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, ওই টাকা জমা দেওয়ার পর থেকে নানা চেষ্টা করেও তিনি অভিযুক্তের খোঁজ পাননি। তদন্তে নেমে কলকাতা পুলিশ জানতে পারে যে অ্যাকাউন্টে নিখিল জৈনের টাকাটি গিয়েছে, সেই অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে গুজরাতে। এর পরই তদন্তকারীরা হানা দেন   গুজরাতের ভদোদরার গোরওয়া এলাকায়। সেখানে তক্কে তক্কে থাকার পর তদন্তকারীরা খোঁজ পান, অভিযুক্ত আস্থা এভিনিউয়ের বাসিন্দা ললিত বাহাদুর দিলবাহাদুর রানার। ধৃতের থেকে দু'টি মোবাইল ফোন, একটি রাউটার মেশিন, একটি এটিএম কাম ডেবিট কার্ড এবং একটি চেকবুক উদ্ধার করেছেন কলকাতা পুলিশের তদন্তকারীরা। ধৃতকে গ্রেপ্তারের পাশাপাশি, তাকে জেরা করে এই প্রতারণাচক্রের সঙ্গে আরও কে কে জড়িত, তা-ও জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।
শুধু নিখিল জৈনই নন। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, এই শহরে ব্যাংক প্রতারণার ঘটনা দিনকে দিন বাড়ছে। পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারও করছে। প্রতারণার ফলে খোওয়া যাওয়া অর্থ উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিচ্ছে প্রতারিতদের। কিন্তু, কলকাতা পুলিশের খেদ, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই প্রতারণা হচ্ছে স্রেফ নাগরিকদের সচেতনতার অভাবে। বারবার সতর্ক করার পরও নাগরিকরা প্রতারকদের সম্পর্কে যাচাই না-করেই অন্ধের মতো তাদের কথা বিশ্বাস করছেন আর, প্রতারণার ফাঁদে পা দিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে যে প্রতারকরা ভিনরাজ্যের বাসিন্দা। সেখানে বসেই এই প্রতারণা চক্র চালাচ্ছে। তার ফলে, পুলিশের কাজ আরও কঠিন এবং শ্রমসাধ্য হয়ে উঠছে। সেই কথা মাথায় রেখে, নাগরিকদের আরও বেশি সচেতন হয়ে ওঠার পরামর্শ দিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only