সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯

শুধু ভারতের মুসলিমরাই সবথেকে সুখিঃ ভাগবত

সারা বিশ্বের মধ্যে শুধুমাত্র ভারতের মুসলিমরাই সবথেকে বেশি সুখি। এমনই মন্তব্য করলেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। আর এজন্য অবশ্য হিন্দুদেরই কৃতিত্ব দিয়েছেন তিনি। ভাগবতের কথায়– ‘আমরা হিন্দু বলেই এদেশের মুসলিমরা সবথেকে সুখি।’
হিন্দু সংস্টৃñতি ও মতাদর্শের সৌজন্যেই ভারতের মুসলিমরা বিশ্বের অন্যান্য জায়গার তুলনায় সবথেকে সুখে ও শান্তিতে রয়েছে। শনিবার ওড়িশায় এক সভায় এমনই মন্তব্য করেন ভাগবত। তিনি আরও বলেন– ‘হিন্দু’ কোনও ধর্ম বা ভাষা নয়। রাষ্টেÉর নামের সঙ্গেও এর কোনও সম্পর্ক নেই। ‘হিন্দু’ হল একটি সংস্টৃñতি। ভারতের সব বাসিন্দাই এই সংস্টৃñতির অংশ। ঠিক কী কারণে ভারতীয় মুসলিমদের সবথেকে সুখি বলে ‘সার্টিফিকেট’ দিলেন তিনি? তারও জবাব দিয়েছেন সংঘ প্রধান। ভাগবতের যুক্তি– ‘অতীতে ভবঘুরে ইহুদিদের আশ্রয় দিয়েছিল ভারত। আশ্রয় দেওয়া হয়েছে পার্সিদেরও। আর এই সবের নেপথ্যে রয়েছে সেই হিন্দু সংস্টৃñতিই। মুসলিমদের ক্ষেত্রেও এমনটাই হয়েছে। হিন্দু মতাদর্শের জন্যই পৃথিবীর অন্যান্য জায়গার তুলনায় অনেক ভাল রয়েছেন ভারতের মুসলিমরা। ভাগবত আরও বলেন– ‘কারও প্রতি সংঘের কোনও বিদ্বেষ নেই। একটি সুস্থ সমাজ গড়ে তোলার জন্য আমাদের এগিয়ে আসতে হবে।’ যদিও ভাগবতের মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল। তিনি বলেন– মুসলিমদের কথা না হয় ছেড়েই দিলাম– ভারতের দলিত ও হিন্দুরা এত ভাল রয়েছে যে তাঁদের প্রতিদিন গণপিটুনি খেয়ে মরতে হয়। সমালোচনায় সরব হয়েছেন হায়দরাবাদের ‘মিম’ সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। তিনি বলেন– ‘হিন্দু নামকরণ করে ভারতে আমার ইতিহাসকে মুছে দিতে পারবেন না ভাগবত। এটা কাজ করবে না। উনি জোর দিয়ে বলতে পারেন না যে আমাদের সংস্টৃñতি– ধর্ম– ধর্মীয় বিশ্বাস– স্বতন্ত্র পরিচয় সবকিছুই হিন্দুত্ব দ্বারা পরিবেষ্টিত।’

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only