মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯

কুরবান শাহ হত্যার ঘটনায় বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর, অস্বীকার বিজেপি’র



পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক : পূর্ব-মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি ও তৃণমূল নেতা কুরবান শাহকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করেছে। গতকাল রাত দশটা নাগাদ দলীয় দফতরে ঢুকে দুর্বৃত্তরা এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ করলে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। চাঞ্চল্যকর ওই হত্যার ঘটনায় আজ (মঙ্গলবার) রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি’র দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন।

শুভেন্দু অধিকারী আজ পাঁশকুড়ার মাইসোরায় নিহতের বাসায় গিয়ে তাঁর স্ত্রী ও পরিবারের অন্য সদসদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। শুভেন্দু অধিকারী এসময় কারও নাম না করে বলেন, এলাকায় পাওয়া সিসিটিভিতে পাওয়া ফুটেজে অভিযুক্তকে বেশ কয়েকবার দেখা গেছে। তিনিই পরিকল্পনামাফিক পঞ্চায়েত সমিতির নেতাকে খুন করিয়েছেন।

অন্যদিকে, বিজেপির জেলা সহসভাপতি মানস রায়ের দাবি, এরসঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই। এটা সম্পূর্ণভাবে তৃণমূলের গোষ্ঠী রাজনীতির ফল।

এদিকে, আজ রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ওই হত্যাকাণ্ডের নিন্দার কোনও ভাষা নেই। হত্যার নেপথ্যে কে রয়েছে একটা বাচ্চা ছেলে থেকে শুরু করে সকলেই জানেন। উনি সংশ্লিষ্ট এলাকায় কখন কীভাবে ছিলেন পুলিশ সিসিটিভিতে তাঁর প্রমাণ পেয়েছে। ঝাড়খণ্ড ও খড়্গপুরের ভাড়া করা সুপারি কিলার দিয়ে কুরবান শাহকে হত্যা করা হয়েছে। ওই হত্যার নেপথ্যে দু’জন রয়েছেন। আমি নাম বলে তাদেরকে হিরো করতে চাই না। পুলিশের কাজ পুলিশ করবে।

শুভেন্দু বাবু বলেন,  আমি ওঁর (কুরবান শাহ) লাশকে সাক্ষী রেখে বললাম, অভিযুক্তরা ভিতরে (কারাগারে) ঢুকবে, আর বেরোবে না। সেজন্য যা আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন সব করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only