সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯

পাকিস্তানকে সতর্ক করলেন জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক


পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক : জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে সতর্ক বার্তা উচ্চারণ করে বলেছেন, ‘আমরা জঙ্গি শিবিরগুলোকে ধ্বংস করে দেব। এবং যদি ওরা (পাকিস্তান) বিরত না হয় তাহলে আমরা ভিতরেও যাব।’ আজ (সোমবার) শ্রীনগরে গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি ওই মন্তব্য করেছেন সত্য পাল মালিক।  
গভর্নর সত্য পাল মালিক বলেন, ‘আমি রাজ্যের জনগণকে বলতে চাই যে  আগামী ১ তারিখ থেকে নতুন কাশ্মীর হবে, এতে তাদের অংশ দিন এবং আপনার রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে যান।’
তিনি বলেন, ‘কাশ্মীরের যে তরুণরা সন্ত্রাসীদের সাহায্য করছে তাদের ভাবা উচিত এসব করে শেষমেশ তাঁরা কী পেয়েছে? ১ নভেম্বরের পরে এই রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন হবে। রাজ্যে বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক কাজকর্মকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। যুবক-যুবতীদের জন্য চাকরির সন্ধান করা হচ্ছে। সেজন্য তরুণদের কাছে এখনও সময় আছে তাঁরা চাইলে সব কিছু ছেড়ে ফিরে আসতে পারে। আমরা চাই তারা এই রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের সাথে একসাথে কাজ করবে।’
গভর্নর মালিক বলেন, ‘যুদ্ধ একটি খারাপ জিনিস এবং পাকিস্তানকে জানা উচিত তার কেমন আচরণ করতে হবে। পাকিস্তান যদি নিজের মতো করে সতর্ক না হয়, গতকাল যা হয়েছে আমরা এর চেয়ে আরও এগিয়ে যাব।’
এভাবে তিনি জম্মু-কাশ্মীরে পাকিস্তানের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের পরে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর পাল্টা জবাবে ক্ষয়ক্ষতির কথা বলতে চেয়েছেন বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।
এ প্রসঙ্গে গতকাল (রবিবার) সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত বলেছিলেন, ‘আমরা খবর পেয়েছিলাম যে কেরান, তঙ্গধার, ও  নওগাম সেক্টরের বিপরীতে পাক অধিকৃত এলাকায় সন্ত্রাসী শিবির চলছে। তাদের লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছিল। ওই হামলায় ৬ থেকে ১০ জন পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়েছে।’
কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করার পরে অনুপ্রবেশের চেষ্টা বেড়ে  গিয়েছে। ধীরে ধীরে সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে। কিন্তু কাশ্মীরের শান্তি নষ্ট করার জন্য পাকিস্তান ও পাকিস্তানের বাইরে কোনও কোনও মহল সক্রিয় বলেও জেনারেল বিপিন রাওয়াত মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only