মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

পরীক্ষা দেওয়ার জন্য নিজের মতো দেখতে ৮জন পরীক্ষার্থী ভাড়া, ধরা পড়লেন বাংলাদেশি সাংসদ

এমপি বুবলী (বামে) ও ভাড়াটে ছাত্রী (ডানে)


নিজে পরীক্ষা দেবেন না। তাই ভাড়া করেছিলেন নিজের মতো দেখতে ৮জন পরীক্ষার্থী। তিনি আবার সাধারণ কেউ নন। প্রতিবেশী বাংলাদেশের শাসক দল আওয়ামী দলের সাংসদ। তবে জনপ্রতিনিধি হয়ে তিনি এই কাজ কীভাবে করলেন, উঠছে প্রশ্ন। আর এই কাণ্ড ঘটাতে গিয়ে ধরা পড়ে অবশেষে বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে তাকে। মুখ পুড়েছে শেখ হাসিনার। সূত্রের খবর, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নাকি সেই এমপি বুবলীকে ডেকে তিরস্কারও করেছেন।

দেশটির নরসিংদীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ তামান্না নুসরাত বুবলীর সব পরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) প্রশাসন। বাউবি'র আওতাধীন বিএ পরীক্ষায় জালিয়াতির আশ্রয় নেয়ায় তাকে বহিষ্কার।

সভায় বুবলীর সব পরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন বাতিলসহ তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নির্বাচনী হলফনামায় এমপি বুবলী তার শিক্ষাগত যোগ্যতা হিসেবে এইচএসসি পাশ দেখান। কিন্তু নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা বাড়িয়ে নিতে বাউবির বিএ কোর্সে ভর্তি হন তিনি। তবে, পরীক্ষা শুরু হলে তার জায়গায় ৮ জন পরীক্ষা দেন। নরসিংদীতে পরীক্ষার কেন্দ্র হলেও সংরক্ষিত মহিলা আসনের এই এমপি পরীক্ষা চালাকালীন সময়ে ঢাকাতেই অবস্থান করেন।

প্রথম ৭টি পরীক্ষায় ধরা না পড়লেও শেষ দিনের পরীক্ষায়  তার হয়ে প্রক্সি দিতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েন একজন। এরপর বিষয়টি গণমাধ্যমে আসলে নড়েচড়ে বসে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর প্রেক্ষিতে এমন সিদ্ধান্ত এল।

উপাচার্য ড. এম এ মান্নান বলেন, "বুবলীর এ ধরনের কাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নষ্ট করেছে। তিনি বাউবির কোনো প্রোগ্রামেই আর কখনও ভর্তি হতে পারবেন না। এ ধরনের কাজ একটি ঘৃণিত ও গর্হিত অপরাধ। যারা তার হয়ে প্রক্সি দিয়েছে তাদের পরিচয়প্রাপ্তি সাপেক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হবে।"





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only