বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯

সংখ্যালঘুদের সন্তান কম হলে তাঁদেরই ভালো : হিমন্ত বিশ্বশর্মা


পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক :  অসমের স্বাস্থ্য ও অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা  বলেছেন,  সংখ্যালঘুদের সন্তানসন্ততি কম হলে তাদেরই মঙ্গল। উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজনীতিতে বিজেপি’র প্রভাবশালী নেতা  হিমন্ত বিশ্বশর্মা  আজ বুধবার গুয়াহাটিতে অসমের দুই সন্তান নীতি নিয়ে আলোচনার সময় ওই মন্তব্য করেন।

হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, ‘সংখ্যালঘু মাত্রই তাঁদের সন্তানসন্ততির সংখ্যা বেশি হবে এই ধারনা রাখাটাই খারাপ। বেশি সংখ্যায় সন্তানের জন্ম দেওয়ার  ব্যাপারে তাঁদের উৎসাহিত করাও ঠিক নয়। বরং তাঁদের এ ব্যাপারে বোঝানো ও  সচেতন করা সবার দায়িত্ব যে সন্তানসন্ততি কম হলে তাঁদেরই মঙ্গল।’   

তিনি বলেন, ‘সরকারের দুই সন্তান নীতির সঙ্গে সংখ্যাগুরু বা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের  আলাদা করে কোনও সম্পর্ক নেই। কিন্তু সরকারি কর্মচারীদের সম্পর্ক তো আছেই। তাঁদের ভাবতে হবে চাকরি রাখবেন,  না দুয়ের বেশি সন্তান চাইবেন।’

অসমে দুইয়ের বেশি সন্তান থাকলে আর সরকারি চাকরি পাওয়া যাবে না। ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ওই নীতি চালু হচ্ছে। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এরআগে পঞ্চায়েত নির্বাচনে দুই সন্তান নীতি কার্যকর হয়েছিল। এবার রাজ্য সরকার চাকরির ক্ষেত্রেও ওই নীতি কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ সম্পর্কে আজ বুধবার অসমের সাবেক বিধায়ক মাওলানা আতাউর রহমান মাজারভুঁইয়া ‘পুবের কলম’ প্রতিবেদককে বলেন, ‘এটা কোনও ধর্মীয় বিশ্বাসের উপরে প্রতিষ্ঠিত নয়। হিন্দু, মুসলিম, শিখ অথবা যেই হোক আইন সকলের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। তথাপি এই আইনটা আমরা সমর্থন করি না। যদিও সরকার এটা পাশ করেছে। কিন্তু এই আইনটা হওয়া ঠিক হয়নি। কারণ সন্তান দুটি হবে, না তিনটা হবে, না চারটে হবে সেটা নির্ধারণ করে দেয়া গোটা ভারতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে চালু হয়নি। অসমে এটা করাটা আমরা অন্যায় বলে মনে করি।’

অসম সরকারের নয়া নীতি অনুসারে ২০২১ সালের ১ জানুয়ারির পরে যে ব্যক্তির দু’টির বেশি সন্তান থাকবে তিনি কোনও সরকারি চাকরির জন্য বিবেচিত হবেন না। ২০১৭ সালে সেপ্টেম্বরে অসম বিধানসভায় পাস হয় ‘পপুলেশন অ্যান্ড উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট পলিসি অব অসম’। ওই বিলে, সরকারি চাকরিজীবী ও চাকরিপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে দুইয়ের বেশি সন্তান না নেয়ার উপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only