শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

শীতে শহরে দূষণ রুখতে এখন থেকেই সক্রিয় প্রশাসন


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: শহরকে দূষণমুক্ত করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল নবান্ন। শীতের সময় দূষণ একটা বড় আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষ করে যে ভাবে যানবাহন বাড়ছে,পরিবেশবিধী অপেক্ষা করে যেভাবে ফুটপাতে আগুন জ্বালানো হয়- এসবই সে সময় দূষণের প্রধান কারণ। শুক্রবার মুখ্যসচিব রাজিবা সিনহা নেতৃত্বে এই দূষণ নিয়ন্ত্রণের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকে মুখ্য সচিব ছাড়া উপস্থিত ছিলেন পরিবহন, পুলিশ, পুরসভা ও পরিবেশ দফতরের আধিকারিকরা।সেখানেই ঠিক হয়েছে শীত আসার আগেই দূষণ নিয়ন্ত্রণে কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
এই বৈঠকে মুখ্য সচিব হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে ১৫ বছরের পুরনো গাড়িকে শহরে না চালানোর সিদ্ধান্তের ওপর জোর দিয়েছেন।পরিবহন দফতরের তরফে তাঁকে আশ্বস্ত করে বলা হয়েছে, ইতিমধ্যেই পরিবহন দপ্তরের তরফ এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি এও জানিয়েছেন ১৫ বছরের বেশি পুরনো গাড়ির ক্ষেত্রে কোনভাবেই পারমিট দেবেনা পরিবহন দপ্তর। এক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশন বাতিল হওয়ায় এমনিতেই ওই গাড়ি চালানো যাবে না। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তরফেও জানানো হয়েছে, ১৫ বছরের বেশি পুরনো গাড়িগুলোকে কোনোভাবেই পরিবেশ দপ্তরের ছাড়পত্র দেওয়া হবে না।
কলকাতা পুরসভার আধিকারিকদের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই মেয়াদ উত্তীর্ণ বেশ কিছু ট্রাককে সনাক্ত করা হয়েছে। এগুলি ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যেই ধাপে ধাপে বদলে ফেলা হবে। শহরে দূষণের ক্ষেত্রে এই ট্রাক গুলিকেও অন্যতম কারণ হিসেবে সনাক্ত করা হয়েছিল। সে কারণে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা।
এই বৈঠকে মুখ্যসচিবের তরফে পুর আধিকারিকদের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে, ফুটপাতে আগুন জ্বালানো নিয়ে কড়া নজদারি চালাতে। একইভাবে পুলিশকে বলা হয়েছে, গাড়ির জ্যাম নিয়ন্ত্রণের দিকে নজর দিতে। জানা গিয়েছে, প্রতি মাসেই এই ধরনের একটা করে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। আসলে যে কোন মূল্যেই শহরে দূষণের ছবিটা বদলাতে চায় প্রশাসন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only