শুক্রবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৯

কন্যাসন্তান দিবসে 'কন্যাশ্রী'-র সাফল্য তুলে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী



চিন্ময় ভট্টাচার্য
'আন্তর্জাতিক কন্যাসন্তান দিবস'-এ কন্যাসন্তানদের অগ্রগতিতে রাজ্য সরকারের ভূমিকার কথা তুলে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি নিজে কন্যাসন্তান। তাঁর নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকার ক্ষমতার আসার পর থেকেই কন্যাসন্তানদের অগ্রগতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছে। চালু করেছে মুখ্যমন্ত্রীর মস্তিষ্কপ্রসূত 'কন্যাশ্রী প্রকল্প'। টুইটে সেই সব কথাই তুলে ধরেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি টুইট করেছেন, 'আজ আন্তর্জাতিক কন্যাসন্তান দিবস। বাংলার সরকার ২০১৩ সালে কন্যাশ্রী প্রকল্প চালু করেছে। ২০১৭ সালে রাষ্ট্রসংঘের প্রথম পুরস্কার পায় এই প্রকল্প। স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত মেয়েদের স্বাবলম্বী হয়ে উঠতে সাহায্য করেছে কন্যাশ্রী প্রকল্প।'
মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত রাজ্যের ৬০ লক্ষ ছাত্রী 'কন্যাশ্রী প্রকল্প'র  সুবিধা পেয়েছে। প্রকল্পের সূচনা থেকে ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত প্রকল্পের মোট বাজেট সাত হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। রাজ্যে সরকার নদিয়া জেলার কন্যাশ্রী বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করছে।এছাড়া জেলায় জেলায় কন্যাশ্রী কলেজ তৈরি করা হবে বলেও মুখ্যমন্ত্রী টুইটে জানিয়েছে।
নবান্ন সূত্রে খবর, কন্যাশ্রী স্কলারশিপ এখন স্কুল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় সর্বস্তরের মেয়েরাই পেয়ে থাকে। কন্যাশ্রী প্রকল্পের ফলে রাজ্যে কন্যাসন্তানদের স্কুলছুটের হার কমেছে।নাবালিকা বিবাহ বন্ধ করা সম্ভব হয়েছে। যার ফলে কমেছে প্রসবকালীন এবং শিশুমৃত্যু হার। এর পাশাপাশি এই প্রকল্পের সাহায্যে শিশুকন্যাদের অপুষ্টি নারীপাচার এবং শোষণও হ্রাস পেয়েছে।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only