বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৯

কাশ্মীরে ইইউ পার্লামেন্টের এমপিদের সফর : ম্যাডি শর্মার সঙ্গে বিজেপি’র যোগসূত্র নিয়ে প্রশ্ন কংগ্রেসের



পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক :  জম্মু-কাশ্মীর ইউরোপীয় পার্লামেন্টের এমপিদের সফরকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক বিজনেস ব্রোকার নামে পরিচিত ম্যাডি শর্মা’র ভূমিকা ও তাঁর সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের শাসকদল বিজেপি’র যোগসূত্র নিয়ে প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেস প্রশ্ন তুলেছে। কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা রণদীপ সূর্যেওয়ালা এক সংবাদ সম্মেলন ওই ইস্যুতে কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছেন।


ইইউ প্রতিনিধিদের সফরের নেপথ্যে ছিলেন, ব্রাসেলসের ওয়েস্ট নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যুক্ত ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রাসেলস নিবাসী ম্যাডি শর্মা। গত ৭ অক্টোবর তিনি ইইউ এমপিদের ভারতে আমন্ত্রণ জানান এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করিয়ে দেওয়ার কথাও তিনি জানিয়েছিলেন।

বুধবার রণদীপ সূর্যেওয়ালা বলেন, কাশ্মীর সফরের সময় আমাদের দেশের সংসদ এমপি ও বিরোধীনেতাদের আটক করে বিমানবন্দর থেকেই ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে অজানা এক আন্তর্জাতিক বিজনেস ব্রোকারের আয়োজিত ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যদের ব্যক্তিগত সফরের জন্য মোদি সরকার লালকার্পেট পেতে দিচ্ছে!

তিনি বলেন, ‘ম্যাডি শর্মার সংস্থার সঙ্গে বিজেপির যোগসূত্র কোথায়? ব্যক্তিগত সফরে আসা ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কীভাবে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ করিয়ে দিচ্ছেন তিনি? এই সফরের জন্য টাকা কোথা থেকে এসেছে? পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কেন এই বিষয়ে সম্পূর্ণভাবে দূরে সরিয়ে রাখা হল?’

রণদীপ সূর্যেওয়ালা বলেন, ‘ভারতের ইতিহাসে সবথেকে বড় কূটনৈতিক ব্যর্থতা। মোদী সরকার তৃতীয় পক্ষকে (কাশ্মীরের পরিস্থিতি) খতিয়ে দেখার অনুমতি দিয়ে ভারতের সার্বভৌমত্ব ক্ষুণ্ণ করছেন। কাশ্মীর আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। আমরা তৃতীয় পক্ষের মধ্যস্থতা চাই না। কিন্তু নরেন্দ্র মোদি তা উল্টে দিচ্ছেন।’

অন্যদিকে, কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেছেন,  ‘ভারতের কৃষক-বেকার যুবকদের এমন সুযোগ নেই যে তাঁরা সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছতে পারেন। তাঁদের সমস্যার কথা বলতে পারেন। কিন্তু, ম্যাডি শর্মার মতো ‘ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ব্রোকার’ গর্বের সঙ্গে লিখতে পারেন, ভারতে আসুন। আপনার খরচ আমরা দেবো। প্রধানমন্ত্রী দফতরে আমার যোগাযোগ আছে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করিয়ে দেবো!’

এদিকে, ম্যাডির সংস্থার দাবি, দিল্লির ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর নন-অ্যালায়েড স্টাডিজ ওই সফরের খরচ বহন করছে।

কংগ্রেসের অভিযোগ, ম্যাডি প্রমাণ করে দিয়েছেন মোদি সরকারে কূটনীতিও বেসরকারি হাতে চলে গিয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only