বুধবার, ২ অক্টোবর, ২০১৯

উত্তর প্রদেশে বাংলাদেশি ও অন্য বিদেশিদের শনাক্তকরণের নির্দেশ



পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক : উত্তরপ্রদেশ সরকার রাজ্যে বাংলাদেশি ও অন্য বিদেশিদের শনাক্ত করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে। উত্তর প্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে পুলিশকে দেয়া ওই নির্দেশকে অসমে কার্যকর হওয়া জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি’র মতো করে দেখা হচ্ছে। পুলিশ অবশ্য এরসঙ্গে এনআরসির যোগসূত্র নেই বলে জানিয়েছে।

আজ (মঙ্গলবার) উত্তরপ্রদেশ পুলিশের মহানির্দেশক ওপি সিং বলেন, এই সিদ্ধান্ত রাজ্যের অভ্যন্তরীণ সুরক্ষার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এটা নজরে এসেছে রাজ্যে অবৈধভাবে বাংলাদেশিরা বাস করছেন। এদের মধ্যে বেশ কিছু নিখোঁজ হয়েছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজ্যের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য বাংলাদেশি এবং এ রাজ্যে বাসরত অন্য বিদেশিদের চিহ্নিত করা ও যাচাই করা প্রয়োজন।’

তিনি বলেন, এর সাথে এনআরসির কোনও যোগসূত্র নেই। বাংলাদেশি ও বিদেশি যারা এখানে অবৈধভাবে বাস করছেন তাদের চিহ্নিত করা হবে এবং তাদের নথি যাচাই করা হবে। তাদের নথিপত্র ভুয়ো প্রমাণিত হলে তাদের বহিষ্কার করা হবে।

উত্তর প্রদেশ পুলিশের প্রাপ্ত আদেশটি অসমে প্রয়োগ হওয়া এনআরসি  বিবাদের মাঝে এসেছে। অসমে এনআরসি তালিকা প্রকাশের পরে ১৯ লাখেরও বেশি লোকের নাম বাদ দেয়া হয়েছে। কিছুদিন আগে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা যোগী আদিত্যনাথ প্রয়োজনে রাজ্যে এনআরসি প্রয়োগের কথা বলেছিলেন।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশকে এমন সরকারী কর্মচারীদের চিহ্নিত করতে বলা হয়েছে যারা বিদেশীদের ভুয়া নথিপত্র তৈরি করতে সহায়তা করেছে। বাংলাদেশী এবং অন্যান্য বিদেশী নাগরিকদের আঙুলের ছাপ নেয়া হবে। পুলিশ সমস্ত নির্মাণকারী সংস্থাকে সেখানে কর্মরত কর্মচারীর পরিচয়পত্র নিজেদের কাছে রাখার নির্দেশ দিয়েছে। এক পরিসংখ্যানে প্রকাশ, রাজ্যটিতে ২০১৫ সাল থেকে ২০১৯ সালের এপর্যন্ত ২০৯ জন বাংলাদেশিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only