সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯

পরকীয়ার সন্দেহে খুন নানুরের সিপিএম নেতা , ধৃত দম্পতি



দেবশ্রী মজুমদার, নানুর, ২১ অক্টোবর: নিজের স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার সন্দেহে নানুরের  সিপিএমের বাসা পাড়া অঞ্চল সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র দে (৫৮) কে খুন করার অভিযোগ এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম মতিউর রহমান। বাড়ি বীরভূমের দুবরাজ পুর। স্ত্রীর সঙ্গে গল্প করতে দেখায় সন্দেহের বশে প্রথমে তাঁকে মাথায় রড দিয়ে আঘাত করা হয়। তার পর  হাত ও পা টুকরো করে কাটা হয়। স্ত্রীর সামনে শরীরের অংশ কেটে টুকরো করে বস্তা বন্দি করে অজয় নদীর চরে কাঁটা পা দুটি ফেলে দেওয়া হয়। বাকি অংশ নানুরের বেসরকারি কলেজ থেকে উদ্ধার করেছে নানুর থানার পুলিশ। পুলিশ জানায় ১৮ অক্টোবর রাতের দিকে সুভাষ চন্দ্র দের বাড়ির সদস্যেরা নানুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। মৃত সুভাষ চন্দ্র দের মেয়ে কাছ থেকে জানা যায় ইলামবাজার হয়ে দুবরাজপুর যাওয়ার কথা বলেছিলেন সুভাষ বাবু । সুভাষের নেটওয়ার্ক লোকশেন ধরে দুবরাজপুরে মতিউর রহমানের স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।  তার কাছ থেকে জানা যায় নরকীয় হত্যার সব  তথ্য। সুচপুর গণহত্যা কান্ডে সুভাষের  নাম থাকলেও  হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছিলেন তিনি।
সুভাষবাবুর মৃত্যুর পিছনে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কই দায়ী বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান। তবে এই নারকীয় হত্যার  পিছনে কোনও রাজনৈতিক কারণ লুকিয়ে আছে কিনা ক্ষতিয়ে দেখছে পুলিশ ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only