বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

খিদের জ্বালা! নেপাল, বাংলাদেশ, পাকিস্তানের থেকেও পিছিয়ে ভারত

 ‘আচ্ছে দিন’-এর স্বপ্ন দেখিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু– যে তথ্য সামনে এসেছে তাতে বড়সড় প্রশ্নের মুখে পড়েছে ‘আচ্ছে দিনের’ ধারণা। এর আগে এক সমীক্ষায় বলা হয়– সুখের সূচকের মাপকাঠিতে ভারত পিছিয়ে। আর এবার পেটের জ্বালায় ও অপুষ্টিতে ভালই ভুগতে হচ্ছে ভারতবাসীকেই। অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এই নিরিখে পাকিস্তান– বাংলাদেশ– শ্রীলঙ্কা এমনকী নেপালের থেকেও খারাপ অবস্থা ভারতের। চলতি বছরের গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স (জিএইচআই) বা ক্ষুধার সূচকের নিরিখে বিশ্বের ১১৭টি দেশের মধ্যে ১০২ নম্বরে রয়েছে ভারত। তালিকায় ভারতের থেকে এগিয়ে বাংলাদেশ। তারা রয়েছে তালিকার ৮৮ নম্বরে। শ্রীলঙ্কা রয়েছে ৬৬ নম্বরে। নেপাল রয়েছে ৭৩ নম্বরে। আর পাকিস্তান রয়েছে ৯৪ নম্বরে। চিন রয়েছে ২৫ নম্বরে। উল্লেখ্য– ওয়ার্ল্ড হাঙ্গার লাইফ অ্যান্ড কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইডের একটি রিপোর্টে আবার দাবি করা হয়েছে– বিশ্বে এমন ৪৫টি দেশ রয়েছে যাদের কাছে খিদের মোকাবিলা করা চিন্তার বিষয়। তারমধ্যে অন্যতম ভারত। রিপোর্ট অনুযায়ী ভারতে ৬-২৩ মাসের শিশুদের মধ্যে শুধুমাত্র ৯.৬ শতাংশ শিশু পুষ্টিকর আহার পায়। জিএইচআই তালিকায় শেষে রয়েছে সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক। আর প্রথমে রয়েছে তুরস্ক– বুলগেরিয়া– চিলি– কোস্টারিকা– কিউবা– কুয়েত– রোমানিয়া– ইউক্রেনের মতো দেশগুলি।  

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only