বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯

আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়: স্টুডেন্টস ম্যাগাজিন প্রচ্ছদের ছবি নিয়ে বিতর্ক

আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট থেকে শুরু করে সব জায়গাতেই লেখা থাকে ‘আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়’ আর উপরে ‘জামিয়া আলিয়া’। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এই প্রথম ‘স্টুডেন্টস ম্যাগাজিন’ প্রকাশ করেছে। সেই ম্যাগাজিনে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় লেখা হলেও ‘জামিয়া আলিয়া’ শব্দটিকে ব্যবহার করা হয়নি। আর এতেই আপত্তি পড়ুয়াদের। উল্লেখ্য, দিল্লিতে ‘জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া’ নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ও রয়েছে। তাই আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সঙ্গে ‘জামিয়া’ লেখাতে আপত্তি, বলে অভিযোগ। একই সঙ্গে ম্যাগাজিনের ‘কভার পেজ’-এ ছেলে-মেয়ে এক সঙ্গে মিলে হোলি খেলা ও ক্যারাম খেলার ছবি ছাপা হয়েছে।
বিক্ষোভরত পড়ুয়াদের বক্তব্য, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামিক সংস্কূতি রয়েছে। সেই কালচারে আঘাত হানা হচ্ছে। তাই অবিলম্বে ম্যাগাজিনে ‘জামিয়া’ শব্দ যোগ এবং হোলি খেলার ছবি বাতিল করতে হবে।
বৃহস্পতিবার আলিয়ার পার্ক সার্কাস ক্যাম্পাসের ছাত্রছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানায়। ম্যাগাজিনের কভার পেজের পরিবর্তন–  কোর্স ফি কমানো সহ একাধিক দাবি নিয়ে বিক্ষোভও দেখায় পড়ুয়াদের একাংশ। এদিন বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের মূল গেটে তালা মেরে বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়ারা। আটকে রাখা হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার আসফাক আলি সহ অন্যান্য বিভাগের অধ্যাপকদের। এদিন সন্ধ্যে নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে হাজির হন উপাচার্য মুহাম্মদ আলি– রেজিস্ট্রার মেহেদি কালাম– ডিন অব স্টুডেন্টস আমজাদ হোসেন এবং দুই বিভাগের ডিন। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষোভরত পড়ুয়াদের সঙ্গে বৈঠকও করেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ছাত্রছাত্রীরা বলেন, তাদের দাবি না মানলে বিক্ষোভ আন্দোলন চলবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only