শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯

অবশেষে ব্রেক্সিট নিয়ে সমঝোতায় ইইউ-ব্রিটেন



আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত রয়েছে ব্রেক্সিটের চুক্তির আল্টিমেট সময়সীমা কিন্তু *পরেখা নিয়ে চলছিল টানাপোড়েন ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)-ব্রিটেনের মধ্যে চুক্তি নিয়ে দ্বন্দ্বে ক্রমশ দূরে সরছিল চুক্তি বাস্তবায়নের আশা ছাড়াও দোলাচলে পড়েছিল ব্রিটেনে রাজনীতি কিন্তু নাছোড়বান্দা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন হাল ছাড়েননি বিরোধীদের সমালোচনার তোয়াক্কা না করেই লড়ে গিয়েছেন ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের জন্য অবশেষে সমস্ত বিতর্ক দূরে সরিয়ে ব্রেক্সিট চুক্তি বাস্তবায়নের পথ সুগম হল টানাপোড়েন সরিয়ে রেখে চুক্তি বিষয় সমঝোতায় পৌঁছল বিট্রেন ইইউ দুপক্ষের মধ্যে বৃহস্পতিবার চুক্তির *পরেখা তৈরি হল
এই ঐতিহাসিক ঘটনায় দুপক্ষ উচ্ছ্বসিত প্রতিক্রিয়া দিয়েছে ইইউ কমিশনেরû প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লাদ একটি টু্যইটবার্তায় বলেন– ‘হয়্যার দেয়ার ইজ ইউলদেয়ার ইজ ডিল-ইউ হেভ ওয়ানঅর্থাৎযেখানে ইচ্ছা থাকেসেখানে চুক্তি হয়
তিনি আরও বলেনদুই পক্ষের মধ্যে সমাঝোতায় আসা অত্যন্ত কঠিন ছিল কিন্তু আমরা অবশেষে একটি স্থির সমাধান খুঁজে পেয়েছি

দিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এক টু্যইট বার্তায় বলেছেনদারুণ একটা সমঝোতায় আমরা পৌঁছেছিপরিস্থিতির ওপর নিয়ন্ত্রণ ফিরেছে আগামী ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ব্রেক্সিট শেষ হবে বলে আশাবাদী জনসন শনিবারই ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বিশেষ অধিবেশনে চুক্তি বিষয়ে অনুমোদন পাওয়ার আশা রাখছেন তিনি

দিন ব্রাসেলসে ইইউ নেতাদের সঙ্গে ব্রিটেনের প্রতিনিধিদের বৈঠকের আগেই দুই পক্ষ চুক্তির বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছন এখন দুই পক্ষের মধ্যে আইনি দিকগুলি নিয়ে খতিয়ে দেখার কাজ চলছে তবে চূড়ান্ত চুক্তি হওয়ার আগে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট এবং ইইউ পার্লামেন্টের অনুমোদন নিতে হবে

তবে এত কিছুর পর বেঁকে বসেছে উত্তর আয়ারল্যান্ডের ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিস্ট পার্টি ডিইউপি তারা সাফ জানিয়েছেনতুন এই ব্রেক্সিট চুক্তি সমর্থন করবেন নার্ধ্বতন ডিইউপি এমপিরা ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউজ অফ কমন্সে চুক্তি নিয়ে আলোচনা করেন জানা গিয়েছেনতুন চুক্তিতে দেওয়া প্রস্তাবগুলি উত্তর আয়ারল্যান্ডের অর্থনৈতিক কল্যাণের জন্য সহায়ক নয় এবং তাতে ইউনিয়নের অখণ্ডতাকে ক্ষুন্ন হবে বলে অভিযোগ উঠেছে দিকে লেবার পার্টির নেতা জেরমি করবিন সুর চড়িয়ে বলেছেনপ্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর টেরেসা মে যে ব্রেক্সিট চুক্তির *পরেখা বানিয়েছিলেনসেটির থেকেও খারাপ এই *পরেখা ফলে পার্লামেন্টের এমপিদের তা প্রত্যাখ্যান করা উচিত

নয়া *পরেখাটি হল

উত্তর আয়ারল্যান্ড ইইউ এর একক মার্কেটের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে

বিতর্কিত ব্যাকস্টপ থাকবে না সমালোচকদের মতেব্যাকটপ এর কারণে ব্রিটেনকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ইইড  সঙ্গে কাস্টমস ইউনিয়ন থেকে সরে যেতে হতে পারে

উত্তর আয়ারল্যান্ড ব্রিটেনের কাস্টমস টেরিটোরির অংশ হিসাবে থাকবে ফলে ব্রেক্সিটের পর সরকারের যেকোনও বাণিজ্য চুক্তিতে তারা অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারবে

একইসঙ্গে উত্তর আয়ারল্যান্ড ইইউ-এর কাস্টমস জোনে প্রবেশদ্বার হিসাবে থাকবে

কোন কোন পণ্য একক বাজারে প্রবেশ করার ঝুঁকিতে আছেতা নির্ধারণ করবে ইইউ বা ইউকে যৌথ কমিটি

উত্তর আয়ারল্যান্ড অ্যাসেম্বলি নতুন বাণিজ্য ব্যবস্থা চালু রাখতে হলে প্রতি চারবছর পর পর ভোট করতে হবে সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে হবে সিদ্ধান্ত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only