শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর, ২০১৯

দেশের দুর্নীতি রুখতে তিউনিশ প্রেসিডেন্টের অভিযান, ৫ বছরের ছুটিতে পাঠালেন স্ত্রীকে


দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করে চান নয়া তিউনিশ প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ। সেটার জন্য বিচার বিভাগকেও স্বতন্ত্র রাখতে চান তিনি। ফলে বিচারক স্ত্রী ইকরাফ সেবিলকে পাঁচ বছরের জন্য ছুটিতে পাঠালেন তিনি। শপথ নেওয়ার পরেই তিনি দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেন। তাই স্ত্রীকে বিচার বিভাগের বাইরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, তাঁর স্ত্রী যতদিন ছুটিতে থাকবেন ততদিন তাকে কোনও বেতন-ভাতা দেওয়া হবে না। এই পাঁচ বছরে বিচার বিভাগে তাঁর স্ত্রীর উপস্থিতির কারণে ওই বিভাগের স্বাধীনতা নিয়ে কোনও প্রশ্ন উঠুক তিনি তা চান না।

গত বুধবার আইনের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক কায়েস সাইদ তিউনিসিয়ার প্রেসিজেন্ট হিসাবে শপথ নিয়েছেন। তিউনিশিয়ার পার্লামেন্টের এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর দ্বিতীয় দফার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ৭২.৭১ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন তিউনিশ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তণ এই অধ্যাপক। তার প্রতিদ্বন্দ্বী নাবিল কারুয়ি পেয়ে ছিলেন ২৭.২৯ শতাংশ ভোট।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only