সোমবার, ৪ নভেম্বর, ২০১৯

করতারপুর করিডোর নিয়ে ইমরানের ঘোষণাকে স্বাগত জানালেন অমরিন্দর

আলোর রশনাইতে সেজেছে গুরুদ্বার

পুবের কলম ডিজিটাল ওয়েব ডেস্ক : করতারপুর করিডোর নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন  পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। ইমরান খান সম্প্রতি এক ঘোষণায় বলেছেন, ‘ভারত থেকে যেসব (শিখ)পুণ্যার্থী করতারপুরে আসবেন, তাঁদের জন্য আমি দু’টি জিনিস মওকুফ করেছি। এক, তাঁদের কোনও পাসপোর্ট লাগবে না। শুধু বৈধ পরিচয়পত্র থাকলেই হবে। তাঁদের সফরের ১০ দিন আগে নাম নথিভুক্ত করাতে হবে না। এছাড়াও করিডোর উদ্বোধনের দিন এবং গুরু নানক দেবের জন্মবার্ষিকীর দিন কোনও ফি-ও নেওয়া হবে না।’

পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানের ওই ঘোষণার পরেই তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। তিনি অবশ্য কেবল শিখদেরই নয়, ভারত থেকে যাওয়া সব পুণ্যার্থীদের জন্য ওই ব্যবস্থা চালু করার জন্য পাক প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন। একইসঙ্গে শুধু দু’দিন নয়, করিডোর দিয়ে যাতায়াতের ফি পুরোপুরি মওকুফ করার আবেদন করেন তিনি।

এরআগে করতারপুরের দরবার সাহিব গুরুদ্বারে যেতে ভারতীয় পুণ্যার্থীদের ১০ দিন আগে নাম নথিভুক্ত করার শর্ত রেখেছিল পাকিস্তান। পাক প্রধানমন্ত্রী সেই শর্ত তুলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। ইমরানের এমন সৌজন্যমূলক পদক্ষেপ গ্রহণে উচ্ছ্বসিত পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং  কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

গতকাল (রোববার) পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেন, করতারপুর করিডোর নির্মাণ তাঁর সরকারের বড় সাফল্য। ‘শিখ পুণ্যার্থীদের’ স্বাগত জানাতে তৈরি হচ্ছে করতারপুর। তাঁর সরকারও প্রস্তুত।

আগামী ৯ নভেম্বর শিখ ধর্মগুরু গুরু নানকের ৫৫০ তম জন্মদিবস। ওই দিনই আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে যাবে করতারপুর করিডোর। এটির উদ্বোধন করবেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এছাড়া তিনি নানকানা সাহিবে গুরু নানকদেব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য পাকিস্তানের আমন্ত্রণ পেয়েছেন।
গুরু নানক দেবজি ৫০ টাকার স্মারক কয়েন

শিখ ধর্মগুরু গুরু নানক দেবের ৫৫০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে পাকিস্তান সরকার গুরু নানক দেবজি ৫০ টাকার স্মারক কয়েন চালু করেছে। তারা একটি ডাক টিকিটও প্রকাশ করবে যার মূল্য হবে ৮ টাকা।

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের নারোয়াল জেলায় সীমান্ত থেকে মাত্র চার কিলোমিটার দূরে অবস্থিত করতারপুর গুরুদ্বার শিখদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র ধর্মস্থান। এই গুরুদ্বারে জীবনের শেষ ১৮ বছর অতিবাহিত করেছিলেন শিখ ধর্মের প্রবর্তক গুরু নানক দেব।

দৈনিক পাঁচ হাজার শিখ পুণ্যার্থীকে করিডোর দিয়ে যাতায়াতের ছাড়পত্র দিয়েছে পাকিস্তান। এজন্য প্রত্যেক পুণ্যার্থীকে ২০ ডলার করে দিতে হবে পাক সরকারকে। সেদেশের কর্মকর্তারা বলছেন, ওই অর্থ শিখ সম্প্রদায়ের কল্যাণে, তাঁদের ধর্মস্থান ও ঐতিহাসিক স্থানগুলো রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ব্যয় করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only