বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনকে ‘বিধিনিষেধ’ প্রসঙ্গে সমস্ত প্রশ্নের জবাব দিতে হবে : সুপ্রিম কোর্ট



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  জম্মু-কাশ্মীরে ‘বিধিনিষেধ’ প্রসঙ্গে ওঠা সমস্ত প্রশ্নের জবাব দিতে হবে বলে রাজ্য প্রশাসনকে জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। রাজ্যটিতে আরোপিত বিভিন্ন বিধিনিষেধকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে যেসব আবেদন জমা পড়েছে, সেই প্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার ওই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি এনভি রমনের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বিচারপতি সমন্বিত বেঞ্চ জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে আদালতে উপস্থিত হওয়া সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতাকে বলেন, আবেদনকারীরা বিধিনিষেধগুলোকে চ্যালেঞ্জ করে বিস্তারিত প্রশ্ন তুলেছেন এবং তাঁকে উত্থাপিত সমস্ত প্রশ্নের জবাব দিতে হবে।

বিচাপতি এন ভি রমন, আর সুভাষ রেড্ডি ও বি আর গভাইকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চ আজ জানায় ‘মিস্টার মেহতা,  আবেদনকারীদের বিস্তারিত সওয়ালে যেসব প্রশ্ন উঠে এসেছে সেসম্পর্কে আপনাকে সমস্ত প্রশ্নের জবাব দিতে হবে।

আদালত বলেছে, আপনার পেশ করা হলফনামা আমাদের কোনও সিদ্ধান্তে আসতে সহায়তা করেনি। এমন কিছু করবেন না যাতে আমাদের মনে হয় এই মামলার বিষয়ে আপনি যথেষ্ট মনোযোগ দেননি।

আদালতে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা দাবি করেন,   আবেদনকারীদের বেশিরভাগ যুক্তিই ‘ভুল’। তিনি যখন আদালতে সাফাই দেবেন সেই সময়  তিনি প্রতিটি বিষয়েই উত্তর দেবেন।

সলিসিটর জেনারেল বলেন, তাঁর কাছে রাজ্যের একটি স্ট্যাটাস রিপোর্ট রয়েছে কিন্তু তা আদালতে দাখিল করেননি। কারণ, রাজ্যের পরিস্থিতি প্রতিদিন পরিবর্তন হচ্ছে। যখন ওই বিষয়ে আদালতে সাফাই দেবেন,  তখন তিনি সঠিক স্থিতি প্রতিবেদন পেশ করবেন বলেও তুষার মেহতা জানান।

কেন্দ্রীয় সরকার গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বাসিন্দাদের জন্য বিশেষ সুবিধা সম্বলিত ৩৭০ ধারা বাতিল করার পর থেকে সেখানে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রকার বিধিনিষেধ কার্যকর করা হয়। এরফলে সেখানকার মানুষজন ব্যাপক দুর্ভোগে পড়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে অবশ্য দাবি করা হয়েছে রাজ্যটি থেকে বেশিরভাগ বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ জম্মু-কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে বুধবার সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্য সভায় জানিয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only