শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯

কেন্দ্রে বিজেপি সরকার বলেই অযোধ্যা রায় হিন্দুদের পক্ষে: দাবি পদ্ম সাংসদের


পুবের কলম, ওয়েব ডেক্স: অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিমকোর্টের রায় নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য পদ্ম সাংসদের। গুজরাতের ভারুচের বিজেপি সাংসদ মনসুখভাই বসাবা ৭০ বছরের এই মামলার নিষ্পত্তির গোটা ক্রেডিটই নিজের দলকে দিয়েছেন। পাশাপাশি দাবি করেন, শীর্ষ আদালত এই রায় দিয়েছে কারণ কেন্দ্রে রয়েছে বিজেপি সরকার।

অযোধ্যার বিতর্কিত স্থলে রাম মন্দির তৈরির পাশাপাশি মসজিদ গড়ার জন্য শহরের কোনও একটি এলাকায় ৫ একর জমির বন্দোবস্ত করতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট। মুসলিম পার্সোনাল '' বোর্ডের সচিব জাফরিয়াব জিলানি ও হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন অয়াইসি সাফ জানিয়েছেন তারা এই রায়ে খুশি নয়। 

জিলানির বক্তব্য, সুপ্রিমকোর্ট একদিকে মেনে নিয়েছে রামলালার মূর্তি বসানো হয় ১৯৪৯ সালে। তার আগে ওখানে নামায হতো এবং ওটা একটি মসজিদ। কিন্তু তা সত্ত্বেও সিদ্ধান্ত অন্যদের বিশ্বাসের পক্ষে এবং বাস্তব ইতিহাসের বিরুদ্ধে গিয়েছে। শীর্ষ আদালতের বহুল চর্চিত রায় নিয়ে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন টানা ৬ বারের বিজেপি সাংসদ মনসুখভাই বসাবা। তাঁর দাবি, শীর্ষ আদালত এই রায় দিয়েছে কারণ কেন্দ্রে রয়েছে বিজেপি সরকার। 

তিনি বলেন, ‘রাম জন্মভূমি অনেক পুরনো ইস্যু। কত বছর পার হয়ে গেছে। দেশ তখন পরাধীন। সেই সময় থেকে রাম জন্মভূমির আন্দোলন চলছে। কত মানুষ ‘শহিদ’ হয়েছে। কত আন্দোলন হয়েছে। সুপ্রিমকোর্ট আমাদের পক্ষে রায় দিল কারণ কেন্দ্রে এখন ক্ষমতায় বিজেপি সরকার’।

সাংসদের এই মন্তব্যে উঠেছে সমালোচনার ঝড়। অনেকের বক্তব্য, যেখানে প্রধানমন্ত্রী বলছেন অযোধ্যা রায়কে কারও হার বা কারও জিত বলে দেখা উচিৎ নয়, সেখানে কীভাবে এই দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করলেন সাংসদ? অনেকে আবার বলছেন, অযোধ্যা নিয়ে সুপ্রিম রায় নিয়েও রাজনীতি করতে ছাড়ছে না গেরুয়া শিবির।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only