রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯

নাগরিকত্ব বিল ‘ক্যাব’-এর বিরুদ্ধে অসমে বিক্ষোভ, রাজভবন ঘেরাও কর্মসূচি


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  অসমে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ‘ক্যাব’-এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংগঠন বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। ক্যাবের বিরুদ্ধে আগামীকাল রাজভবন ঘেরাও কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।  

‘আসু’র মুখ্য উপদেষ্টা ড. সমুজ্জ্বল ভট্টাচার্য বলেন, ‘১৮ নভেম্বর উত্তর-পূর্বের ত্রিশটি সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রত্যেক রাজ্যের রাজভবনের সামনে প্রতিবাদ জানানো হবে। তিনি বলেন, উত্তর-পূর্বের মুখ্যমন্ত্রীরা ওই বিলের (ক্যাব) সরাসরি বিরোধিতা করেছেন কিন্তু অসমের মুখ্যমন্ত্রী এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্ত নীরবে মেনে নিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালকে এখন তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করে জানাতে হবে তিনি ‘বিদেশি’র পক্ষে, না অসমের ভূমিপুত্রদের পক্ষে।’

কৃষক নেতা অখিল গগৈ বলেন, ‘এখন আর বসে থাকার সময় নেই। ওই বিলের বিরুদ্ধে সবাইকে পথে নেমে আন্দোলন করতে হবে।’ অসম  জাতীয়তাবাদী যুব ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে যেকোনো মূল্যে ওই বিল আটকানোর হুঁশিয়ারি দেওয়া-সহ প্রয়োজনে রাজ্যে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে জানানো হয়েছে।    

গত শুক্রবার অসমে ক্যাবের বিরুদ্ধে সারা অসম ছাত্র সংস্থা থেকে শুরু করে কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি, অসম জাতীয়তাবাদী যুব ছাত্র পরিষদ পথে নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।  

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে কেন্দ্রীয় সরকার প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ‘ক্যাব’ পাশ করানোর চেষ্টা করছে। প্রতিবেশি বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় নির্যাতনের ফলে এদেশে আসা হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, খ্রিস্টান, পার্শিদের জন্য নাগরিকত্ব আইন সংশোধন (ক্যাব)করে তাঁদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু অসমের আন্দোলরত সংগঠনগুলোর সাফ কথা ১৯৭১ সালের পরে আসা হিন্দু-মুসলিম কাউকে থাকতে দেওয়া হবে না। সংসদে বিল পাশের আগেই তাঁরা মাঠে নেমে প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only