শুক্রবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৯

গডসে ইস্যুতে উত্তাল সংসদ, চাপের মুখে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি এমপি সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  গান্ধীজির হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে ‘দেশভক্ত’ বলার অভিযোগে অবশেষে বিরোধীদের চাপের মুখে সংসদে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি এমপি সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর। আজ শুক্রবার ওই ইস্যুতে সংসদে সরকারপক্ষ ও বিরোধীদলীয় এমপিদের মধ্যে তুমুল বাকবিতণ্ডা ও হট্টগোল হয়।

এপ্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শাহনওয়াজ হুসেন বলেন, প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর ক্ষমা চেয়েছেন। বিষয়টি এখানেই শেষ হওয়া উচিত। ভবিষ্যতে তাঁকে মনে রাখা উচিত বাপুকে অপমানের অনুমতি দেয়া হবে না। নাথুরাম গডসে ‘বাপু’র হত্যাকারী ছিল এবং বিজেপি তাঁকে হত্যাকারী বলেই মনে করে।   

আজ লোকসভার অধিবেশনের শুরুতেই গডসে মন্তব্যের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন সাধ্বী প্রজ্ঞা। একইসঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী তাঁকে ‘সন্ত্রাসী’ বলে অভিহিত করে যে মন্তব্য করেছেন  তার প্রতিবাদে সোচ্চার হন প্রজ্ঞা ঠাকুর। এসময় প্রজ্ঞা ঠাকুরের সমর্থনে বিজেপি এমপিরা সোচ্চার হন। এতে তীব্র আপত্তি তোলেন কংগ্রেস-সহ বিরোধীদলীয় অন্য এমপি’রা। 

সাধ্বী ইচ্ছাকৃতভাবে সংসদের বাইরের ঘটনাকে টেনে এনে, আসল ঘটনা থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ তোলেন তাঁরা। অবিলম্বে সাধ্বীকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে বলে তাঁরা দাবি জানান। এনিয়ে গোলযোগ চরমে উঠলে স্পিকার ওম বিড়লা অধিবেশন স্থগিত রেখে সব দলকে সঙ্গে নিয়ে আলোচনায় বসেন। সেখানেই সর্বসম্মতভাবে ঠিক হয় প্রজ্ঞাকে ফের ক্ষমা চাইতে হবে। এরপরে অধিবেশনের কাজ শুরু হলে দ্বিতীয় বার ক্ষমা চান প্রজ্ঞা ঠাকুর। 

তিনি তাঁর সাফাইতে বলেন, ’২৭ নভেম্বর এসপিজি নিয়ে আলোচনার সময় আমি নাথুরাম গডসেকে দেশভক্ত বলিনি। এমনকি আমি গডসের নাম পর্যন্ত মুখে আনিনি। তবুও কেউ আহত হয়ে থাকলে, আমি ফের ক্ষমা চাচ্ছি।’
সাধ্বী প্রজ্ঞা এসময় বলেন, ‘সংসদের এক সদস্য আমাকে ‘সন্ত্রাসী' বলেছেন।  এটা এমপি হিসেবে ও নারী হিসেবে আমার সম্মানে আক্রমণ। আমার বিরুদ্ধে আনা কোনও অভিযোগই আদালতে প্রমাণিত হয়নি। আমাকে ভুল ভাবে উদ্ধৃত করা হয়েছে। ইচ্ছাকৃতভাবে আমাকে ‘সন্ত্রাসী’বলা হয়েছে যা  বেআইনি। যিনি এটা করেছেন তিনি সরাসরি ভারতীয় বিচার ব্যবস্থাকে অপমান করছেন।’

গত বুধবার সাধ্বী প্রজ্ঞা সংসদে গডসে সম্পর্কে তাকে দেশভক্ত বলে উল্লেখ করায় ক্ষুব্ধ কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এমপি গতকাল (বৃহস্পতিবার) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার বার্তায় বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদী প্রজ্ঞা দেশপ্রেমী বানিয়ে দিয়েছেন সন্ত্রাসবাদী গডসেকে। ভারতের সংসদীয় ইতিহাসে এটা বড়ই দুঃখের দিন।’
আজ শুক্রবার ওই ইস্যুতে রাহুল গান্ধী সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সাফ জানিয়ে দেন মন্তব্য প্রত্যাহারের কোনও প্রশ্নই নেই। তিনি তাঁর মন্তব্যে কায়েম রয়েছেন বলেও জানিয়ে দেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only