শুক্রবার, ১ নভেম্বর, ২০১৯

পাঠ্যপুস্তক থেকে বাদ যাচ্ছে টিপু সুলতানের জীবনী



শিক্ষা ব্যবস্থায় ফের গেরুয়াকরণের ছাপ! কর্নাটকে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পরই সর্বপ্রথম টিপু সুলতান জয়ন্তী উদ্যাপন বন্ধ করা হয়। আর এবার সরকারি স্কুলে পাঠ্যসূচি থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে টিপুর জীবনী। যা নিয়ে ফের বিতর্ক শুরু হয়েছে। উল্লেখ্য,  টিপু সুলতানকে সবসময় হিন্দু বিদ্বেষী তকমা দিতে চেষ্টা করেছে গেরুয়া শিবির। তাদের দাবি, টিপু নাকি ‘গোঁড়া মুসলিম’ ছিলেন। একাধিক মন্দির ধ্বংস করেছিলেন। যদিও এমন কোনও প্রমাণ টিপুর বিরুদ্ধে পাওয়া যায়নি বলেই মত বেশিরভাগ ঐতিহাসিকদের। বরং তাঁদের পালটা বক্তব্য, মহীশূরের শাসক টিপু সুলতান শুধু স্বাধীনতা সংগ্রামী ছিলেন না, তাঁর সর্বধর্মপ্রীতি ছিল চোখে পড়ার মতো। তাঁর বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ অপপ্রচার ছাড়া আর কিছুই নয়। তাঁদের মতে, টিপুর মতো দেশপ্রেমিক– জাতীয়তাবাদী নেতা বিরল।মহীশূর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সেবাস্টিয়ান যোসেফ বলেন, টিপু সুলতানকে ভারতীয় ইতিহাসের একজন 'খলনায়ক' হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে।

যদিও কর্নাটকের ইয়েদুরাপ্পা সরকার এসব মানতে নারাজ। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, টিপুকে গৌরবান্বিত করে এমন কোনও প্রবন্ধ স্কুলের পাঠ্যসূচিতে রাখা হবে না। খোদ মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পাও জানিয়েছেন, পাঠ্যপুস্তকে কোনওভাবেই টিপুকে রাখা হবে না। বিজেপি সরকারের এই পদক্ষেপের নিন্দা করেছেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়া। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only