শুক্রবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৯

আফগানিস্তানে পিঙ্ক শার্টেল, বাস চালিয়ে মেয়েদের কর্মসংস্থানের দিশা দেখাচ্ছেন পারিসা


পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক, কাবুল : আফগানিস্তান। যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটির সরকার এখন শান্তি আনার সন্ধানে বহু পরিকল্পনা করছে।এর মধ্যে সেখানকার নারীদের দিশা দেখাচ্ছে পারিসা হায়দারি নামে এক মহিলা মিনিবাস চালক।

আফগানিস্তানে নারীদের জন্য আলাদা কোনও পরিবহনের ব্যবস্থা নেই। তাই প্রায়শই সেখানকার নারীদের অসুবিধায় পড়তে হয়।দেশটির নারীদের যাতায়াতে অসুবিধা কথা চিন্তা করেই, শুরু হয়েছে 'পিঙ্ক শাটল' নামে একটি বাস সার্ভিস। পারিসা এই বাস পরিষেবার আওতায় ১০ সিটের বাস চালান। এই পরিষেবা শুধু নারীদের জন্য চালু হয়েছে।  পাশাপাশি তাদের সঙ্গে থাকা শিশুদেরও এই পরিষেবার আওতায় রাখা হয়েছে।

পারিসা জানিয়েছেন, বাস চলানোর জন্য বহু প্রতিক্রিয়া আমি শুনেছি। বাস চলাচল পরিষেবা এখন পর্যন্ত পুরুষকেন্দ্রীক, সমালোচনার পাশাপাশি এই কাজ নিয়ে প্রশংসাও আসে, কেউ কেউ আবার ফাঁকা রাস্তায় পাল্লা দিয়ে আমার সঙ্গে রেসও করেন।কিন্তু তাতে কিছু এসে যায় না। কারণ আমি বাস চালাতে ভালোবাসি, কাজটাকে ভালোবাসি। রাস্তায় বাস নিয়ে যেতে গিয়ে বহু বাধা এসছে কিন্তু তাতে ভয় পাইনি।

জানা গিয়েছে, 'পিঙ্ক শাটল' আফগানিস্তানে একটি পরীক্ষামূলক প্রকল্প। ইতালির বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নভ ওনলাসের আফগান নারীদের জন্য এই পরিষেবায় অর্থিক সাহায্য করেছে। প্রথম পর্যায়ে এই পরিষেবা কাবুলে চালু হয়েছে। বর্তমানে কাবুলে পিঙ্ক শাটলের ৪টি বাস কাজ করছে।

প্রকল্পটির পরিচালক ওবায়দুল্লাহ আমিরি জানিয়েছেন, কাবুলে মহিলাদের জন্য পরিবহনে সমস্যা রয়েছে। প্রকৃতপক্ষে মহিলাদের জন্য কোনও পরিবহণ পরিষেবা নেই। মে মাসে প্রথম দেশের নারীদের জন্য এই 'পিঙ্ক শাটল' পরিষেবা চালু হয়। নাগরিকদের পূর্ণ সমর্থন পেলে তারা আরও পরিষেবা বাড়ানোর চেষ্টা করবেন। প্রথমে এই পরিষেবার উপভোক্তা নারীদের বিনামূলে যাতায়াত করার অনুমিত দেওয়া হয়েছে।

কাবুলের ট্যাফিক বিভাগের প্রধান খান মুহাম্মদ শিনওয়ারার মতে, আফগানিস্তানের রাজধানীতে মহিলা চালকদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। বছরের শুরুতে ২৭৫ লাইসেন্স অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আফগানিস্তানে নারীদের গাড়ি চালানো একটি ইতিবাচক পরিবর্তন। ২০১২ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত মোট ১,১৮৯ জন মহিলা চালকের লাইন্সে পেয়েছেন কাবুলে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only