শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯

অসমে ফের এনআরসি করা হলে তা মেনে নেওয়া হবে না : ‘আমসু’






পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  অসমে ফের জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি করা হলে তা মেনে নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে অল অসম মাইনরিটি সুটেডেন্টস ইউনিয়ন বা ‘আমসু’।

গত বুধবার রাজ্যসভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ গোটা দেশের সঙ্গে অসমেও এনআরসি করা হবে বলে মন্তব্য করেন। এরপর থেকে রাজ্যটিতে ওই ইস্যুতে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

‘আমসু’ উপদেষ্টা আজিজুর রহমান বলেছেন, ‘আমরা অমিত শাহের সিদ্ধান্ত মানি না। আমাদের আপত্তির পরেও সরকার ফের এনআরসি প্রস্তুতের পথে এগোলে আমরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবো।’

এব্যাপারে ‘পুবের কলম’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ‘আমসু’ উপদেষ্টা আজিজুর রহমান বলেন, ‘অমিত শাহ এনআরসি সম্পর্কে সংসদে যে বিবৃতি দিয়েছেন, গোটা ভারতে তাঁরা এনআরসি প্রকাশ করবে সে সম্পর্কে আমাদের বলার  কিছুই নেই। কিন্তু উনি অসমে আবার এনআরসি করার যে কথা বলছেন, সেক্ষেত্রে আমাদের আপত্তি আছে। যেহেতু ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনায় এনআরসির কাজ চলছিল এবং অসম রাজ্যের সহযোগিতায় এনআরসির কাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পথে রয়েছে। সেজন্য পুনরায় এনআরসির কাজ শুরু হলে লোকজনকে আবার সাজা-শাস্তি (দুর্ভোগ) হবে। আমরা লোকজনকে   সাজা-শাস্তির মুখে ফেলার পক্ষপাতী নই। যেহেতু এখানে একটা পদ্ধতিতে  এনআরসি হয়ে গেছে, সেজন্য আবার এখানে এনআরসি করার কোনও প্রশ্নই আসে না। নতুন করে আবার এখানে এনআরসি করার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না।’

এদিকে, অসম প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রিপুন বরা বলেছেন, গত ৩১ আগস্ট যে এনআরসি প্রকাশ করা হয়েছে, সেটা বাতিল করে যদি নতুন করে এনআরসি করা হয় তাহলে সাঙ্ঘাতিক প্রতিক্রিয়া হবে।

অন্যদিকে, অসমের বিরোধী নেতা ও কংগ্রেসের বিধায়ক দেবব্ৰত শইকিয়া বলেন, ‘কেন্দ্ৰীয় সরকার দেশের সঙ্গে রাজ্যে নতুন করে এনআরসি নবায়ন করতে চাওয়ার পিছনে একটা গূঢ় উদ্দেশ্য থাকতে পারে। তাঁর মতে, প্ৰথমত কেন্দ্ৰীয় সরকার  চাচ্ছে, ‘সুপ্ৰিম কোর্টের কোনওরকম তদারকি ছাড়া এনআরসি নবায়ন’ করতে। এমনটা হলে ‘ ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্ৰদায়ের বেশকিছু প্ৰকৃত ভারতীয় নাগরিকের নাম ছেঁটে দেওয়া’ এবং ‘ভাষিক সংখ্যালঘু’ সম্প্ৰদায়ের একাংশের অবৈধ অনুপ্ৰবেশকারীর নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত করা সহজ হবে।’ বিজেপি ধর্মীয় লাইনে এনআরসিকে মেরুকরণ করার চেষ্টা করছে বলেও দেবব্রত শইকিয়া মন্তব্য করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only