সোমবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৯

দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বিডিওকে ডেপুটেশন সিপিএমের


পুবের কলম ওয়েব ডেক্স: পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ও কর্মাধ্যক্ষ নিজেরাই আড়ৎদার সেজে ধান কিনত। তাই পঞ্চায়েতে পঞ্চায়েতে প্রকৃত কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনতে হবে। এই দাবিতে সোমবার বীরভূমের নলহাটি ২ নম্বর ব্লকে স্মারকলিপি জমা দিল সিপিএম। দাবি পূরণ না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে দলের পক্ষ থেকে।

এদিন ১৪ দফা দাবিতে মিছিল বের করে সিপিএম। লোহাপুর বাজার থেকে মিছিল বের হয়। এরপর ব্লক অফিসে একটি প্রতিনিধি দল গিয়ে দাবি পত্র বিডিওর হাতে তুলে দিয়ে আসেন। সিপিএমের জেলা কমিটির সদস্য খাইরুল হাসান বলেন, “সভাপতি ও কর্মাধ্যক্ষ কৃষকদের কাছে ধান কিনে বিক্রি করছে। নিজেরাই ফোড়ে, নিজেরাই আড়ৎদার। ফলে প্রকৃত কৃষকরা লভ্যাংশ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তাই আমদের দাবি পঞ্চায়েতে পঞ্চায়েতে ধান কিনতে হবে শুধু তাই নয় সভাপতি এবং অন্যান্য সদস্যরা ত্রিপল শুধু বাড়িতে নিয়ে চলে যাচ্ছে। আমাদের দাবি একশো দিনের কাজ দুশো দিন করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ি নিয়ে দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। বিদ্যুৎ বিল প্রতিমাসে পাথাতে হবে। কৃষিক্ষেত্রে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ দিতে হবে। শ্রমিকদের মজুরি নুন্যতম ৩৭৫ টাকা করতে হবে”। বিডিও হুমায়ূন চৌধুরী বলেন, “উনাদের দাবি পত্র ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে”।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only