শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯

শরীরচর্চা থেকে বিমুখ হচ্ছে শিশুরা, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মস্তিষ্কের বিকাশ



পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক: ইন্টারনেট ও ভিডিয়ো গেমের প্রভাবে শরীরচর্চা থেকে ক্রমশ বিমুখ হয়ে পড়ছে শিশুরা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রিপোর্ট অনুযায়ী, ১১ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের মধ্যে পাঁচ জনের মধ্যে চারজনই যথেষ্ট শারীরিক অনুশীলন করে না। ফলে স্বাস্থ্যের সঙ্গে মস্তিষ্কে বিকাশ বাধা প্রাপ্ত হচ্ছে। সামাজিক দক্ষতা অর্জনও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরাশর্ম অনুযায়ী প্রতিদিন এক ঘন্টার ব্যায়াম করতেই ব্যর্থ হচ্ছে ধনী ও গরিব সব দেশের শিশুরাই।

বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে ১৪৬টি দেশের মধ্যে দেখা গিয়েছে, মাত্র চারটি দেশ ছাড়া আর সমস্ত দেশেই মেয়ে শিশুর চেয়ে ছেলে শিশুরা বেশি সক্রিয়।
শরীর চর্চা করলে হৃদস্পন্দন দ্রুত হয় এবং দেহ যথেষ্ট অক্সিজেন পেতে পারে। যেমন, দৌড়ানো সাইকেল চালানো, সাঁতার, ফুটবল খেলা, জিমন্যাস্টিকের মাধ্যমে শিশুদের কায়িকপরিশ্রম করানো অত্যন্ত জরুরি। তাতে শিশু-কিশোরদের মধ্যে ওবেসিটি-র ঝুঁকি কমে। অন্তত ৬০মিনিট প্রতিদিন এই ধরণে শরীরচর্চার প্রয়োজন রয়েছে। এটিকে কোনও অসম্ভব টার্গেট বলে মনে করছেন না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার চিকিৎসক ডা. ফিওনা বুল।

পর্যাপ্ত শারীরিক অনুশীলন না করলে শিশুদের স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদে নানা সমস্যায় পড়ার ঝুঁকি থাকে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় ঝুঁকিটিই স্বাস্থ্যের। কিশোর বয়সে শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকলে তা পরবর্তী জীবনে সুস্বাস্থ্য গঠনে সহায়ক হয়। সক্রিয় বলতে, সুস্থ হৃৎপিণ্ড, সুস্থ ফুসফুস, শক্ত হাড় ও পেশি, উন্নত মানসিক স্বাস্থ্য ও কম ওজন থাকা বোঝায়।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only