শনিবার, ২ নভেম্বর, ২০১৯

কাশ্মীরের পরিস্থিতি নড়বড়ে, শান্তি ফেরাতে মোদীর পদক্ষেপের কথা জানতে চাইব: আঙ্গেলা ম্যার্কেলে

পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক : কাশ্মীরে শান্তি ও স্থিতাবস্থা ফেরাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কী করেছেন, তা জানতে চাইবেন বলে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলে মন্তব্য করেছেন। গতকাল (শুক্রবার) রাতে তিনি গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘কাশ্মীরের পরিস্থিতি অত্যন্ত নড়বড়ে। সেখানকার উন্নতি প্রয়োজন। আমি প্রধানমন্ত্রী মোদিকে জিজ্ঞাসা করব, এলাকায় শান্তি ও স্থিতাবস্থা ফেরাতে তিনি কী পদক্ষেপ করছেন!’ 
গত বৃহস্পতিবার তিন দিনের জন্য ভারত সফরে আসেন আঙ্গেলা ম্যার্কেলে। ভারতের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’-এ জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের এমন মন্তব্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পক্ষে অস্বস্তিদায়ক বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন।
কাশ্মীর অভিন্ন অঙ্গ এবং ওই ইস্যুতে ভারত বরাবরই নিজেদের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’ বলে উল্লেখ করেছে। গত (বৃহস্পতিবার) ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার কাশ্মীর ইস্যুতে চীনকে টার্গেট করে বলেছিলেন, ‘ভারতের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়ে’ অন্য কেউ নাক গলাক, এটা ভারত কখনও চায় না।’
তিনি সাফ জানিয়েছিলেন, ‘চীন হোক বা অন্য কোনও দেশ, আমরা কখনওই চাই না, ভারতের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’ নিয়ে কথা বলুক। ভারত যেমন অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কথা বলতে যায় না।’
জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার প্রতিবাদ ও একে ‘বেআইনি’ বলে অভিহিত করে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াংয়ের মন্তব্যের পাল্টা জবাবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার ওই মন্তব্য করেছিলেন। কিন্তু তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কাশ্মীর ইস্যুতে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের নয়া মন্তব্যে জল্পনা সৃষ্টি হয়েছে।
কাশ্মীর পরিস্থিতি সম্পর্কে সম্প্রতি জার্মানির পক্ষ থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, কাশ্মীর থেকে অবিলম্বে সমস্ত বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করে জনজীবনে স্বাভাবিকতা ফিরিয়ে আনা উচিত। এরপরে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের জার্মান প্রতিনিধি নিকোলাউস ফেস্ট কাশ্মীর সফর করে সেখানকার পরিস্থিতি ‘উদ্বেগজনক’ বলে মন্তব্য করেছিলেন।
শুক্রবার ভারত ও জার্মানির মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র  মোদী জার্মান চ্যান্সেলর ম্যার্কেলেকে কাশ্মীর পরিস্থিতি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এবং সেখান থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণগুলো জানান। এসময় তিনি ম্যার্কেলেকে পাকিস্তানের ভারত-বিরোধী সন্ত্রাসের দিকটিও বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও ম্যার্কেলে ওই মন্তব্য করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only