শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

এনকাউন্টারে মৃতদের শেষকৃত্যে স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: এনকাউন্টারে মৃতদের শেষকৃত্যের ওপর স্থাগিতাদেশ চাপালো হায়দরাবাদ হাইকোর্ট। একই সঙ্গে মৃতদেহগুলির ময়নাতদন্তের ভিডিয়োগ্রাফির নির্দেশ দিয়েছে।

হায়দরাবাদ ধর্ষণকাণ্ডের অভিযুক্তরা পুলিশের এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে। ঘটনার পুনস্থাপন করাতে নিয়ে গিয়ে পুলিশের কাছ থেকে অস্ত ছিনিয়ে নিয়ে পালাতে যায় তারা। পুলিশ কমিশনারের দাবি, অভিযুক্তরা পালানোর সময় পুলিশকর্মীদের ওপর গুলি চালানো হয়। তাতে দুজন পুলিশকর্মী আহত হয়েছে বলে দাবি। সেই সময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশ অভিযুক্তদের ওপর গুলি চালায়।

ঘটনার জেরে হারদরাবাদ পুলিশের প্রশংসা হলেও তা নিয়ে অনেকেই আপত্তি জানিয়েছে। মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে বলে দাবি করেছেন। আগামী সোমবার অর্থাৎ ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত অভিযুক্তদের মৃতদেহ সংরক্ষিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সেদিন রাত আটটা পর্যন্ত মৃতদেহগুলির শেষকৃত্য করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়ে হায়দরাবাদ হাইকোর্ট।  
এই এনকাউন্টারের আইনি বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। সেই মামলাতে শুক্রবার রাতে এই নির্দেশ দেয় আদালত। ওই এনকাউন্টের ঘটনায় প্রশ্ন তুলে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন ১৫ জন মহিলা এবং মানবাধিকার কর্মী। গোটা ঘটনায় সুপ্রিম কোর্টের গাইডলাইন মেনে চলা হয়নি বলে আবেদনে উল্লেখ করেছিলেন তারা। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মৃতদেহের শেষকৃত্য করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আদালত।

এর আগে এনকাউন্টারে মৃত ৪ অভিযুক্তের পরিবার তাদের মৃতদেহ নিতে অস্বীকার করে। যার ফলে স্থির হয়, হায়দ্রাবাদকাণ্ডে চার অভিযুক্তের শেষকৃত্য করবে পুলিশই। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only