বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯

কোনও নথিপত্র ছাড়াই নিঃশর্ত নাগরিকত্ব চাই : মমতা ঠাকুর

 
পুবের কলম প্রতিবেদক, বনগাঁ : নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বা ‘ক্যাব’ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বনগাঁর সাবেক তৃণমূল এমপি ও সারা ভারত মতুয়া মহাসঙ্ঘের সঙ্ঘাধিপতি মমতা ঠাকুর। তিনি আজ বৃহস্পতিবার বলেন,  ‘নাগরিকত্ব বিলে ছয় বছরের শর্ত রাখা হল কেন? কোনও শর্ত ছাড়াই আমরা নাগরিকত্ব চাই। তিনি বলেন, দেশভাগের শিকার হয়ে যারা এদেশে এসেছি, আমরা তার ফল ভোগ করব কেন? বিজেপি যে বিল পাস করেছে তাতে নতুন কিছুই নেই, আগে আমাদের ‘অনুপ্রবেশকারী’ বলা হতো এবার সেটি পরিবর্তন করে ‘শরণার্থী’ করা হয়েছে মাত্র।’
তিনি বলেন, ‘ওরা একদিকে বলছেন, ৬ বছর থাকার পরে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। আবার অন্যদিকে বলছেন কোনও প্রমাণপত্র লাগবে না। তাহলে ওঁরা কীভাবে বুঝবেন যে নাগরিকত্বের দাবি জানানো ব্যক্তি ৬ বছর আগে এসেছেন?  কোনও না কোনও প্রমাণপত্র অবশ্য চাওয়া হবে।  কোনও আবেদন করে আমরা নাগরিক হতে চাই না। ওঁরা বলতে পারতেন যারা ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে যারা এদেশে এসে গেছে তাঁরা সকলেই এদেশের নাগরিক।’ তিনি বলেন, ‘আমরা এদেশের নাগরিক।  আবেদন করে আমাদের নাগরিকত্ব নিতে হবে কেন?’
মমতা ঠাকুর বলেন, নাগরিকত্ব বিল নিয়ে দল যেভাবে বলবে পরবর্তীতে আমরা সেই ভাবে এগোব। নাগরিকত্ব বিল পাসের পরে তিনি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন বলে এমন জল্পনা প্রসঙ্গে মমতা ঠাকুর সাফ জানান, ‘এটা মানুষের ধারণা মাত্র। এনিয়ে আমি কাউকে কিছুই বলিনি এবং ভাবিনি যে কিছু করব। আমি তৃণমূলে ছিলাম এখনও আছি এবং থাকব। অন্যদলে  যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। দলের সুপ্রিমো যেটা বলবেন সেটাই আমি করব।’ খুব শিগগিরি মতুয়া নেতৃত্বের সঙ্গেও ক্যাব নিয়ে বৈঠক হবে এবং সেই অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া বলেও বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের  সাবেক তৃণমূল এমপি ও মতুয়া মহাসঙ্ঘের সঙ্ঘাধিপতি মমতা ঠাকুর মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only