সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯

ভারত থেকে যারা অন্যদেরকে তাড়াতে চায় তাদের দেশে তাঁদের কোনও জায়গা নেই : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘এনআরসির নামে দেশ থেকে মানুষকে বিতাড়িত করার চক্রান্ত করছে বিজেপি। এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সকলকে আহ্বান জানাচ্ছি। জোট বাঁধুন, তৈরি হোন। সারা দেশে বিজেপিকে একা করে দিন। ভারত থেকে যারা অন্যদেরকে তাড়াতে চায় তাদের কোনও জায়গা ভারতবর্ষে নেই।’  তিনি আজ (সোমবার) পুরুলিয়াতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ‘সিএএ’/‘ক্যা’ ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ‘এনআরসি’র বিরুদ্ধে এক প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশে ওই মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, ‘নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ-আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। এই আন্দোলন গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলন। কাউকে তাড়ানোর অধিকার বিজেপির নেই। দেশের সব জায়গায় এই আন্দোলন হচ্ছে।  পড়ুয়ারাও আন্দোলনে শামিল হয়েছেন। তাই তাঁদের ভয় দেখানো হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আন্দোলন করতে গিয়ে উত্তর প্রদেশে ২৩ জন গুলিতে মারা গিয়েছেন। কর্ণাটকেও ২ জন মারা গিয়েছেন। সারা ভারতে যে যেখানে এই আন্দোলন করছেন আমরা তাদের পাশে আছি। দেশে ১৩০ কোটি মানুষ। এরমধ্যে যদি এক হাজার জনকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয় তাহলে বাকি লোকেরা কী করবে? তাঁরা কী ‘কলা’ খাবে, না ‘ললিপপ’ খাবে?’ 

মমতা বলেন, ‘আমরা সকলেই নাগরিক। দেশের স্বাধীনতার এত বছর পরেও প্রমাণ দিতে হবে আমরা নাগরিক কি না, এর থেকে লজ্জাজনক কথা তো আর কিছু হতে পারে না! এর থেকে লজ্জার আর কিছু নেই! ক’বার ভোট দিয়েছেন? দেশে পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু, গুজরাল, ভিপি সিং,  দেবগৌড়া, রাজবী গান্ধী, ইন্দিরা গান্ধী, লালবাহাদুর শাস্ত্রী, মনমোহন সিং, কত প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন? সব প্রধানমন্ত্রীকে ভোট দিয়ে জেতানো হয়েছে। তাঁরা দেশে সরকার চালিয়েছেন। আজ ওনারা (বিজেপি) এসে বলছেন সব  বহিষ্কার করো, দেশ থেকে ভাগো! দেশ থেকে সবাই পালাবে আর বিজেপি একা থাকবে?’

ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির পরাজয়কে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, ঝাড়খণ্ডে দেখুন না,  লোকেরা ওদেরকে তাড়িয়ে দিয়েছে। সুযোগ পেয়েছিল ওদেরকে তাড়িয়ে দিয়েছে। যেখানেই এরকম সুযোগ আসবে তাড়িয়ে দেবে। মহারাষ্ট্রে সুযোগ এসেছিল, ভাগিয়ে দিয়েছে। এভাবে যখনই নির্বাচন হবে সবাই ওদেরকে বিতাড়িত করবে।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের কাজ মানুষের অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থানের ব্যবস্থা করা। ভারত একটি বড় দেশ। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে আমরা চলি। রাজস্থান, বিহার, উত্তর প্রদেশ, কেরালা, পাঞ্জাব, বাংলার ভাষা ভিন্নভিন্ন। কিন্তু একটা কথাই আমাদের হৃদয়ে আছে তা হল ‘সাঁরে জঁহা সে আচ্ছা, হিন্দুস্তা হামারা’। একে আপনারা কীভাবে বিভক্ত করতে পারেন? এটা চলবে না। এজন্য আমরা বাংলা থেকে আন্দোলন শুরু করেছি। এখন দেশজুড়ে তা চলছে।’ আমরা চাই যে দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ, ছাত্ররা ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই আন্দোলন চালিয়ে যাক বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only