রবিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৯

পরিকল্পিতভাবেই ধর্ষণ করা হয়েছিল প্রিয়াঙ্কাকে, স্বীকারক্তি অভিযুক্তদের


পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক: কয়েক দিন আগে ঘটে যাওয়া ২৬ বছর বয়সী প্রিয়াঙ্কা রেড্ডির গণধর্ষণের রহস্য উন্মচণ করল সংবাদ মাধ্যম।

জানা যায়, ধর্ষকরা পরিকল্পনা মাফিক ঘটনাটি ঘটিয়েছিল। বুধবার রাতে পশু চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কাকে ধৰ্ষণ করার পূর্বে জোরপূর্বক মদ খাইয়েছিল ধর্ষকরা। যাতে ধর্ষণে বাধা দিতে না পারে।

সন্ধ্যে ৬.৩০ নাগাদ ওই তরুণী স্কুটি পার্কিং লটে বাইক রেখে যায়। তখনই সেই গাড়ির টায়ার পাংচার করে দেই জলু শিভা, মহম্মদ আরিফ,  জলু নবীন ও চিন্তাকুন্তা চেন্নাকেসাভুলু নামে এই চার ধর্ষক। আনুমানিক ৮.৪৫ নাগাগ প্রিয়াঙ্কা রেড্ডি পার্কিং লটে ফিরে এসে দেখে তার বাইক পাংচার হয়ে গিয়েছে। সেই সময়ই কারও কাছে সাহায্য চাওয়ার আগেই এই চারজন গিয়ে তার কাছে উপস্থিত হয়।

তার বাইকের চাকা সারানোর নাম করে তাকে আড়ালে নিয়ে যায় অভিযুক্তরা। তারপর তাকে জোর করে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। তখন নিজেকে বাঁচাতে চিৎকার করতে গেলে তাঁকে বেহুঁশ করার জন্য জোর পূর্বক মদপান করানো হয়। ধর্ষণ করার পূর্বে অভিযুক্ত চারজনও মদ্যোপ অবস্থায় ছিল বলে জানা গিয়েছে।

বেহুশ থাকা অবস্থায় মহিলাটিকে লাগাতার গণধর্ষণ করতে থাকে সেই ধর্ষকরা। একসময় রক্তপাত শুরু হলে তারা ধর্ষণ করা বন্ধ করে দেয়। ধীরে ধীরে যুবতীর হুশ ফিরতে দেখে তাকে ট্রাকে করে তুলে নিয়ে যায় পুড়িয়ে মারার জন্য। মাঝে রাস্তায় একটি পেট্রোল পাম্প থেকে সেই ধর্ষকরা পেট্রোল কিনে একটি নির্জন ব্রীজে নীচে নিয়ে আসে ওই যুবতীকে। সেখানে নিয়ে গিয়ে তার গায়ে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

হুশ ফেরার সময় তার এই দুরাবস্থার কথা জানাতে বোনকে শেষবারের মতো ফোন করেছিলেন ওই যুবতী। তারপর চিরকালের জন্য সব শেষ।

পুলিশের দাবি, চার অপরাধীই নারায়ণপোতের বাসিন্দা। এলাকাটি হায়দ্রাবাদ থেকে ১৬০ কিমি দূরে। ওরা লরি চালক ও খালাসি হিসেবে কাজ করত। প্রত্যেকের বয়স ২০-২৬ বছরের মধ্যে। ঘটনার পর এফআইআর নিতে অস্বীকার করার অভিযোগে তিন পুলিশকর্মীকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে অপরাধের বিরুদ্ধে গণবিক্ষোভ শুরু হলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই তাদের গ্রেফতার করে তেলেঙ্গানা পুলিশ। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only