সোমবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

বিজেপির অপশাসন থেকে আজাদির ডাক শান্তিনিকেতন থেকে রামপুরহাটে!


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক , বীরভূম: বিজেপির অপশাসন থেকে আজাদির ডাক শান্তি নিকেতন থেকে রামপুরহাটে পৌঁছল। সোমবার বিশ্ব ভারতীর বামপন্থী মতাদর্শের সমস্ত সংগঠন এক জোট হয়ে উপাসনালয় থেকে মশাল মিছিল শুরু করে। শহর প্রদক্ষিণ করে ফের তাদের এই মিছিল শেষ হয় উপাসনালয়ে। সেই মিছিল থেকে গেরুয়া অপশাসন থেকে মুক্তির ডাক দেওয়া হয়।  পাশাপাশি, এন আর সি ও সি এ এ বিরোধী শ্লোগান দেওয়া হয়। 

এদিন বোলপুর ডাকবাংলো মাঠ থেকে তৃণমূলের মিছিল শুরু হয়ে গোটা শহর প্রদক্ষিণ করে ডাকবাংলো মাঠে শেষ হয়। এই মিছিলে হাঁটেন বোলপুর সাংসদ অসিত মাল, মন্ত্রী চন্দ্র নাথ সিনহা, বোলপুর পুরসভার চেয়ারম্যান সুশান্ত ভকত প্রমূখ। ঢাক ঢোল বাজিয়ে মিছিলে হিন্দু পুরোহিত, মুসলিম মৌলবী, আদিবাসী মানুষ মিছিলে হাঁটেন। নানুর, বোলপুর থেকে কাতারে কাতারে মানুষ ভিড় করে মিছিলে। 

অন্যদিকে, রামপুরহাটে দলীয় কার্যালয় থেকে বহু মানুষ মিছিল করে  গোটা শহর পরিক্রমা করে পাঁচ মাথা মোড়ে বিশাল সমাবেশ হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী আশীষ বন্দোপাধ্যায়, জেলা সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব ভট্টাচার্য্য ও সহ-সভাপতি সৈয়দ সিরাজ জিম্মি, যুব নেতা অভিষেক বন্দোপাধ্যায় প্রমূখ। 
এদিন সমাবেশ থেকে মন্ত্রী আশীষ বন্দোপাধ্যায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দাগেন। আশীষ বন্দোপাধ্যায় বলেন, যে দেশের নাগরিক নির্বাচক তাদের নাগরিকত্বের প্রমাণ লাগবে? যদি তারা নাগরিক না হয়ে থাকেন, তাহলে তাদের ভোটে আপনি কি করে প্রধানমন্ত্রী থাকেন? আপনি পদত্যাগ করুন। অমিত শাহ আপনি আসামে বলেছেন, মুসলিমদের তাড়িয়ে দেবেন। আগে আপনি বলুন, ইউ পি এ আমলে আপনি কেন জেল খেটেছেন? এই দাঙ্গাবাজ বিজেপির বিরুদ্ধে মানুষ আজ স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন নেমেছেন। বলুন, উত্তর প্রদেশে এত মানুষ মরছেন কেন?  আসামে ১৯ লক্ষ বাঙালির নাগরিকত্ব বাতিল করেছেন। যার মধ্যে ১১ লক্ষাধিক মানুষ হিন্দু, বাদবাকি অন্য সম্প্রদায়ের মানুষ। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী আসামে প্রতিনিধি পাঠিয়ে প্রতিবাদ করেছেন। যারা ভূমিহীন তারা দলীল কোথায় পাবেন? তাদের তো জমি নেই। পেঁয়াজের দাম ১৫০ টাকা কেজি। তার কোন উত্তর নেই আপনার কাছে প্রধানমন্ত্রী। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী সুফল বাংলা থেকে কম দামে মানুষকে পেঁয়াজ সরবরাহ করেছেন।

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only