শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

হাসপাতালে মৃত্যু উন্নাওয়ের নির্যাতিতার


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়াই করার পর শুক্রবার রাতে মারাত্মক শারীরিক ও মানসিক যন্ত্রণার কাছে হার মানলেন উন্নাওয়ের নির্যাতিতা তরুণী।

শুক্রবার রাত ১১.৪০ মিনিটে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন নির্যাতিত। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কারও শরীর নব্বই শতাংশ পুড়ে গেলে, এমনিতেই বাঁচার আশা ক্ষীণ থাকে। তা-ও মনে জোর রেখে দুদিন ধরে বেঁচে থাকার  লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন। আগুনে পোড়া শরীরটা নিয়ে ছুটে ছিলেন কিলোমিটার। চিৎকার করে সাহায্য চেয়েছিলেন। কেউ সেই কাকুতি, আর্তনাদ শোনেনি। তবু মন্দের মধ্যে ভালো হয়ে ছিল যে, একজন তার আর্তিতে সাড়া দিয়ে ফোনটা হাতে তুলে দিয়েছিলেন তরুণীর। সেই মোবাইল থেকেই ফোন করে অ্যাম্বুল্যান্স ডেকেছিলেন।

মৃত্যুকালে গোপন জবানবন্দিতে বছর তেইশের ওই তরুণী পুলিশকে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ভোর ৪টের সময় রেলস্টেশনে প্রথম তাঁর উপর হামলা চালানো হয়। ওরা লাঠি দিয়েদিয়ে আমার পায়ে আঘাত করে। আমি হুমড়ি খেয়ে স্টেশনে পড়ে যায়ই, আমার ঘাড়ে ধারালো ছুরি দিয়ে কোপাতে থাকে।সেই অবস্থায় ওদের একজন আমার গায়ে পেট্রোল ঢেলে, দেশলাই মেরে দেয়হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে উন্নাওয়ের তরুণীর শেষে আর্জি,দেখবেন অপরাধীদের একজনও যেন ছাড়া না পায়

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only