সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

মায়ানমারকে বয়কটে করল ৩০টি মানবাধিকার সংস্থা




পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক: রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর করা নির্যাতনের জন্য কোণঠাসা হয়ে পড়েছে মায়ানমার। এবার মায়ানমারকে বয়কটের ডাক দিয়েছে দশ দেশের ৩০টি মানবাধিকার সংস্থা। 

নেদারল্যান্ডসের রাজধানী দ্য হেগে আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়েরকৃত মামলার শুনানি শুরুর একদিন আগে আজ সোমবার এই বয়কটের ডাক দিল মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

 ইতিমধ্যে এই মামলায় মায়ানমারের পক্ষে লড়তে ইতোমধ্যেই হেগ শহরে পৌঁছেছেন দেশটির ডি ফ্যাক্টো নেতা অং সান সু চি। রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে গত নভেম্বরে গাম্বিয়ার দায়েরকৃত এই মামলার শুনানি ১০ ডিসেম্বর শুরু হয়ে চলবে তিনদিন।

গণহত্যার মামলার শুনানি চলাকালে রোহিঙ্গাদের একাধিক প্রবাসী গোষ্ঠী হেগের আন্তর্জাতিক আদালতে বিক্ষোভের পরিকল্পনা করছে। মায়ানমার সরকারের সমর্থনেও সেখানে সমাবেশের পরিকল্পনা করছেন মায়ানমারের নাগরিকরা।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মায়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা মুসলিম গণহত্যার অভিযোগ এনে গত নভেম্বরে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করে পশ্চিম আফ্রিকার মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ছোট্ট দেশ গাম্বিয়া।

২০১৭ সালের আগস্ট মাসে মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের হত্যা, ধর্ষণ ও অমানবিক নির্যাতন শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী। সামরিক বাহিনীর এ নির্যাতনে ৭ লক্ষ ৩০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। রাষ্ট্রসংঘ মায়ানমার সামরিক বাহিনীর এই অভিযানকে গণহত্যার অভিপ্রায় বলে মন্তব্য করেছে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে মামলার পূর্ণাঙ্গ শুনানি শুরুর আগে রাষ্ট্রসংঘের ১৬ সদস্যের বিচারক প্যানেলকে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় অস্থায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানাবে সংস্থাটি।

রোহিঙ্গা মানবাধিকার সংগঠন দ্য ফ্রি রোহিঙ্গা কোয়ালিশন এক বিবৃতিতে বিশ্বের ১০টি দেশের ৩০টি মানবাধিকার সংস্থা একযোগে মায়ানমারকে বয়কটের এই কর্মসূচি শুরু করেছে বলে জানিয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন সংস্থা, বিদেশি বিনিয়োগকারী, পেশাদার এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনকে মায়ানমারের সঙ্গে প্রাতিষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only