শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

রোজ সংস্কৃত বললে কমে ডায়াবেটিস ও কোলেস্টরল!


পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক: রোজ সংস্কৃত ভাষায় কথা বললে স্নায়ুতন্ত্র শক্তিশালী হয়। নিয়ন্ত্রণে থাকে ডায়াবেটিস ও কোলেস্টরল। এমনই আজব দাবি বিজেপি সাংসদ গণেশ সিং-এর।
সংস্কৃত কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় বিল, ২০১৯ বিতর্কে অংশ নিয়েছিলেন সাংসদ। সেখানেই তাঁর দাবি, রোজ সংস্কৃতে কথা বললে স্নায়ুতন্ত্র শক্তিশালী হয়। নিয়ন্ত্রণে থাকে ডায়াবেটিস ও কোলেস্টরল। একটি  মার্কিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গবেষণাতেই এর প্রমাণ মিলেছে বলেও দাবি করেন তিনি।

এখানেই শেষ নয়। সাংসদের আরও দাবি, কিছু ইসলামিক ভাষা সহ বিশ্বের ৯৭ শতাংশ ভাষার ভিত্তিই হল সংস্কৃত। এমনকী মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার গবেষণা রিপোর্ট বলছে, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং  যদি সংস্কৃতে করা যায়, তাহলে তা নির্ভুল হবে।  

তিনটি সংস্কৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জুড়ে সংস্কৃত সেন্ট্রাল বিশ্ববিদ্যালয় করতে চায় কেন্দ্র। সেই ৩টি বিশ্ববিদ্যালয় হল, রাষ্ট্রীয় সংস্কৃত সংস্থান, দিল্লির লালবাহাদুর শাস্ত্রী রাষ্ট্রীয় সংস্কৃত বিদ্যাপীঠ ও তিরুপতি রাষ্ট্রীয় সংস্কৃত বিদ্যাপীঠ। এই উদ্দেশ্যে সম্প্রতি লোকসভায় একটি বিল আনে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ  উন্নয়ন মন্ত্রক। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানান, সংস্কৃত, তামিল–হিন্দি ও বাংলার মতো ভারতীয় ভাষাগুলোকে আরও প্রচারিত করতে চায় সরকার। উদ্দেশ্য পরবর্তী প্রজন্ম যাতে এই ভাষাগুলো পড়ে। সেই প্রসঙ্গেই সংস্কৃত ভাষার বেঁফাস প্রশংসা করে বসেন সাংসদ গণেশ সিং।

তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন, সংস্কৃত ভাষার প্রসারে কেন্দ্রের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। কিন্তু সংস্কৃতের পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নামকরণ করলে, বাংলায় বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার কালি কিছুটা মুছত’।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only