বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

কুয়ালালামপুর সামিটে জাকির নায়েক


সারা বিশ্বে চলছে সংঘাত, সংঘর্ষ, সন্ত্রাসবাদী হামলা। তাই বন্ধ হচ্ছে না রক্তপাত ও হত্যাযজ্ঞের ধারাপাত। এতে যত মানুষের প্রাণহানি হচ্ছে, তার ৯৪ শতাংশই মুসলিম। সবথেকে বেশি জান-মালের ক্ষতি হচ্ছে মুসলিমদের। এই অপরিমেয় ক্ষতির জন্য চড়া মাশুল দিতে হচ্ছে মুসলিমদেরকেই। এই দুর্দশার অবসান ঘটাতে হলে সমগ্র মুসলিম উম্মাহকে একযোগে এগিয়ে আসতে হবে। এভাবেই মুসলিম বিশ্বের প্রতি ঐক্যের আহ্বান জানালেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান। মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালা লামপুর শহরে আয়োজিত ইসলামি সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। 

তাই মুসলিম দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের উদ্দেশ্যে প্রেসিডেন্ট এরদোগান এদিন বলেন, শুধু অন্যের দিকে আঙুল না তুলে, অন্যের খুঁত না খুঁজে নিজেদের কাজের বিশ্লেষণ করতে হবে। আত্মসমীক্ষা ও আত্মসমালোচনাই উন্নয়নের পূর্বশর্ত। অন্যের দোষ-ত্রুটি খুঁজতে গিয়ে আমাদের সব এনার্জি ও মেধা খরচ হয়ে যাচ্ছে। তার থেকে বরং নিজ দেশের নাগরিক পরিষেবার প্রতি বেশি গুরুত্ব দেওয়ার আর্জি জানান তিনি। 

কুয়ালা লামপুরে অনুষ্ঠিত ইসলামি সম্মেলনে হাজির ছিলেন বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক ডা. জাকির নায়েক। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের অধিবেশনে দেখা যায় ডা. নায়েককে। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে অনেকেই বক্তব্য রাখার জন্য আবেদন করলেও তিনি ভাষণ দেননি। এমনকী সাংবাদিকদের সঙ্গেও কথা বলেননি। উল্লেখ্য, এই প্রথম সরকারি উদ্যোগে আয়োজিত কোনও সমাবেশে দেখা গেল তাঁকে।  


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only