শনিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯

মুর্শিদাবাদে ট্রেনে পাথর ছোড়া কাণ্ডে ধৃতদের দু’জনের পুলিশি ও তিনজনের জেল হেফাজত

পুবের কলম প্রতিবেদক, বহরমপুর: বুধবার মুসলিম সেজে ট্রেনের ইঞ্জিনে পাথর মারা ঘটনায় অভিযুক্তদের শুক্রবার লালবাগ মহকুমা আদালতে হাজির করা হয়। ধৃত পাঁচজনের মধ্যে দু’জনকে পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজত এবং তিন নাবালককে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল সুপর্ণা রায়।

উল্লে্খ্য আটক ছ’জনের মধ্যে ১ জন এখনও মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

গত বুধবার বিকেলে শিয়ালদা-লালগোলা ট্রেন লাইনে মুর্শিদাবাদ থানার কুমোরপাড়া গ্রামে সাতজন যুবক লুঙ্গি, পাঞ্জাবি এবং মাথায় টুপি পরে রেলের ট্রায়াল ইঞ্জিনে পাথর ছুড়ছিল। ওদেরই একজন এই ঘটনার ভিডিয়ো রেকর্ডিং করছিল। স্থানীয়দের সন্দেহ হওয়ায় এদেরকে ধরে ফেলে। যার মধ্যে একজন পালিয়ে যায়। বাকি ছ’জনকে ধরে গ্রামবাসীরা জানতে পারেন এরা সবাই অমুসলিম পরিবারের ছেলে। কিন্তু মুসলিম সেজে পাথর ছোড়ার ভুয়ো রেকর্ডিং করছিল। পরে তাদেরকে মুর্শিদাবাদ থানায় সোপর্দ করে গ্রামবাসীরা। এই বর ১৯ ডিসেম্বর প্রথম প্রকাশিত হয় একমাত্র ‘পুবের কলম’-এ। ২০ ডিসেম্বর শুক্রবার বরটির আপডেট ‘পুবের কলম’ এবং ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। শুক্রবার বিকেলে নবান্নে মাননীয় মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে এই ঘটনার উল্লে করেন এবং প্রথম প্রকাশিত হওয়া সংবাদপত্রকে ধন্যবাদ জানান।

শুক্রবার যে পাঁচজনকে আদালতে হাজির করা হয়েছে তাদের তিনজন প্রাপ্ত বয়স্ক নয়, তারা একাদশ শ্রেণির ছাত্র। এই তিনজনকে ম্যাজিস্ট্রেট ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। অন্য দু’জনের অভিষেক সরকার (২২) মুর্শিদাবাদের নেতাজি সুভাষ সেন্টেনারি কলেজে বিএ তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। অভিষেকের বাড়ি মুর্শিদাবাদ থানার সিরিজনগর গ্রামে। কলেজ সূত্রে জানা গেছে, এই কলেজের বিজেপি ছাত্র সংগঠন এবিভিপি-র নেতা এবং এলাকার প্রতিষ্ঠিত বিজেপি কর্মী। অন্যজন প্রভাকর সাহা (২২) মাধ্যমিক পাশের পর পড়াশোনা ছেড়ে স্থানীয় এক জেরক্স দোকানের কর্মী। বাড়ি মুর্শিদাবাদ শহরে ১নং ওয়ার্ডে। প্রভাকরের বাবা গোপেশ্বর সাহা বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সদস্য এবং জ্যাঠা ভুবেনশ্বর সাহা ছিলেন মুর্শিদাবাদ শহরের বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রধান। স্বভাবতই মুসলিম সেজে পাথর মারার ঘটনায় অন্যকোনও বড় ধরনের চক্রান্ত ছিল বলে পুলিশ মনে করছে। ইতিমধ্যে মুর্শিদাবাদ পুলিশ এদের কাছ থেকে লুঙ্গি, পাঞ্জাবি, টুপি, একটা ভিডিয়ো ক্যামেরা, রেকর্ডিং করা মেমরি কার্ডটি সিজ করেছে। কার নির্দেশে এই রেকর্ডিং করছিল অভিযুক্তরা, তার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only