বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯

জল্পনার অবসান, মঞ্জুর বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতির ছুটির আবেদন


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক, বীরভূম: মঞ্জুর হল বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরির ছুটির আবেদন। বুধবার ছিল জেলা পরিষদের সাধারণ সভা। সেই সভাতেই ছুটি দেওয়া হয় সভাধিপতি কে। আগামী ছয় মাস সহকারি সভাধিপতি নন্দেশ্বর মন্ডল জেলা পরিষদের সভাধিপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

স্ত্রীর অসুস্থতা এবং ছেলের বিয়ে প্রভৃতি ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরি ছুটির আবেদন করেন। সেইমতো এদিন জেলা পরিষদের সভাকক্ষে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই সভাতেই মঞ্জুর করা হয় সভাধিপতি ছুটির আবেদন।

বীরভূম জেলা পরিষদের ৪২ জন সদস্য পাশাপাশি পদাধিকারবলে ১৯ টি পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ১১ জন বিধায়ক এবং জেলার দুই সাংসদ সদস্য। তাদের মধ্যে এদিন ৫৫ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। জেলা পরিষদের ৪ জন মহিলা সদস্য এবং বিকাশবাবু উপস্থিত ছিলেন না।

তিনজন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, সকল বিধায়ক এবং সাংসদরা এদিন গরহাজির ছিলেন। সাংসদদের এখন অধিবেশন থাকায় তারা অনুপস্থিত ছিলেন। এদিনের জেলা পরিষদের সাধারণ সভায় যে সমস্ত সদস্য উপস্থিত ছিলেন না তারা আগে থেকেই জানিয়ে দিয়েছিলেন। সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরীর ছুটি মঞ্জুর হওয়ার পর এদিন থেকেই সহকারি সভাধিপতি নন্দেশ্বর মন্ডল দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন।

এদিন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দুই শীর্ষ স্থানীয় জেলা নেতা নুরুল ইসলাম এবং ত্রিদিব ভট্টাচার্য জেলা পরিষদের সাধারণ সভার আগে উপস্থিত হন এবং দলীয় সকল সদস্যকে বিকাশবাবু ছুটি মঞ্জুর করার বিষয়টি অবগত করেন। 


ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নন্দেশ্বর মণ্ডল বলেন," বিকাশবাবু ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ছুটির আবেদন করেছিলেন সেই আবেদনে দিনের সাধারণ সভায় মঞ্জুর হয়েছে, আগামী ছয় মাসের জন্য আমি সেই দায়িত্বে থাকব। এর পাশাপাশি জেলাশাসক তথা জেলা পরিষদের এক্সিকিউটিভ অফিসার মৌমিতা গোদারা নিয়মিত জেলা পরিষদে এসে বসবে এবং বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের তদারকি এবং সরাসরি সহযোগিতা করবেন"।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only