মঙ্গলবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

সংবিধান মেনে নাগরিকত্ব আইন করা হয়নি : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করে বলেছেন, সংবিধান মেনে নাগরিকত্ব আইন করা হয়নি। কোলকাতায় আজ এক জনসমাবেশে বক্তব্য রাখার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন।

ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) যা পরবর্তীতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে পরিণত হয়েছে এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ‘এনআরসি’র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ কয়েক হাজার মানুষকে সঙ্গে নিয়ে বিক্ষোভ-মিছিলে শামিল হন। এসময় মিছিলে অংশগ্রহণ করা মানুষজন বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসির বিরুদ্ধে স্লোগান দেন।


মমতা আজ বিজেপি’র সমালোচনা করে বলেন, ‘বিজেপি ভাবছে দেশ দখল করে নিয়েছে। কিন্তু গায়ের জোরে সবকিছু হয় না। মানুষের সমর্থন না পেলে আইন কার্যকর হয় না। সংবিধান মেনে নাগরিকত্ব আইন করা হয়নি। সংসদে কবে বিল পাস হবে, তা আগে জানানো হয়নি।’ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসির বিরুদ্ধে এই আন্দোলন জয়লাভ করবেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, ‘রোটি-কাপড়া-মকান (অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান) এই হচ্ছে আমার সবচেয়ে বাঁচার বাসস্থান, আমার হিন্দুস্তান। কিন্তু  অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান কিছুই নেই। কেবল ‘ডিভাইড অ্যান্ড রুল’ পলিসি। বিভাজন করে শাসন করার নীতি। কখনও বলছে মন্দির গড়ব, কখনও বলছে মসজিদ ভাঙবো, কখনও বলছে মুসলিম তাড়াবো, কখনও বলছে হিন্দু তাড়াবো, কখনও বলছে খ্রিস্টানদের অ্যাংলো ইন্ডিয়ান সিট বাতিল করে দেবো, কখনও বলছে বাবাসাহেব আম্বেদকরের ভাস্কর্য ‘গেরুয়া’ করে দাও! এসব আবার কী!’

দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ায় শিক্ষার্থীদের ওপরে সাম্প্রতিক পুলিশি তাণ্ডবের তীব্র নিন্দা করে বলেছেন, মমতা আজ বলেন, ‘কী জঘন্য টর্চার! যা সহ্য করা যায় না।’  

মমতা বলেন, ‘সাবধান থাকবেন এই আন্দোলনের মধ্যেও আন্দোলন যাতে ভেঙে যায় বিজেপি’র কিন্তু ছলনার শেষ নেই। ষড়যন্ত্রের শেষ নেই। কোথাও কোথাও কিছু লোক ঢুকিয়ে দিয়ে টুক করে একটা আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে পালিয়ে যাবে। আগুন জ্বালাতে দেখলে সঙ্গে সঙ্গে নিভিয়ে দেবেন। যে এসব কাজ করবে তাঁকে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেবেন।’  

সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে ‘ক্যাব’ পাস করানো প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ‘সংখ্যায় বেশি থাকলে কোনও কোনও বিল পাস করানো যায়। কিন্তু মনে রাখবেন, মানুষের সমর্থন যাতে থাকে না, সেটা কিন্তু কার্যকরী হয় না। সংবিধান মেনে তবেই কিন্তু করতে হয়। এক্ষেত্রে কিন্তু সংবিধান মানা হয়নি। যারা বলছে আইনত ‘ক্যাব’ আইনে পরিণত হয়েছে কিন্তু সংখ্যার জোরে আইনে পরিণত হলে হবে না। সংবিধান মেনেছ কী মানো নি-এটা আজকে সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।’ আমাদের সংবিধান অনুযায়ী আমরা গণতান্ত্রিক, সার্বভৌম, ধর্মনিরপেক্ষ, এটা আমাদের দেশ। এটা মাথায় রাখবেন বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only