শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯

ক্যাবের জন্য উত্তর-পূর্ব ভারত ভ্রুমণ এড়িয়ে চলার পরামর্শ ফ্রান্স, ইসরাইল, আমেরিকা, ব্রিটেনের



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: এনআরসি নিয়ে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা উত্তর পূর্ব ভারত। এই ঘটনা জেরে তাদের দেশের নাগরিক, সরকারি কর্মকর্তাদের ভারতের ওই অঞ্চলে ভ্রমণ করতে মানা করেছে আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, ইসরাইল।

ব্রিটেনের বিদেশ দফতর এক বিবৃতি জারি করে বলেছে, ব্রিটেন উত্তরপূর্ব ভারতে দেশের নাগরিক ও কর্মকর্তাদের ভ্রমণ এড়িয়ে চলতে আহ্বান জানাচ্ছে। যারা কাজের প্রয়োজনীয়তার জন্য সেখানে ভ্রমণ করতে বাধ্য হচ্ছেন, তাদের সাবধানতা অবলম্বন করতে বলা হচ্ছে। সেখানকার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলি থেকে আসা খবর থেকে ভারতের ওই অঞ্চলের পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছি আমরা।

এছাড়া ওয়াঘা সীমান্ত ছাড়া জম্মু এবং কাশ্মীর, লাদাখ ভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তারা।মার্কিন সরকারও সাময়িকভাবে নাগরিকদের অসম ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে।এই রাস্তায় হেঁটেছে ফ্রান্স ও ইসরাইলও।

অন্যদিকে রাষ্ট্রসংঘ ভারতের এই বিলটির নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তারা বলেছেন, ক্যাব যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর প্রকৃতির ওপর একটি বৈষম্যমূলক আঘাত। ভারত সরকারকে তারা আইনটিকে সংশোধনের জন্য পাঠাবার আহ্বান করেছে। সংস্থাটি বলেছে, এই আইনে মুসলিমদের অন্তর্ভুক্ত না করায় তা প্রকৃতিগতভাবে বৈষম্যমূলক হয়েছে। এছাড়া রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জানিয়েছেন, এই আইনের ফলাফল কী দাঁড়া, তা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক খবরে এসব বলা হয়েছে।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় মানবাধিকার বিষয়ক রাষ্ট্রসংঘের মুখপাত্র জেরেমি লরেন্স শুক্রবার এক ব্রিফিংয়ে বলেছেন, আমরা জানি যে, এই আইনের বৈধতা ভারতের সর্বোচ্চ আদালতের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে। আমারা আশা করছি, মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক আইনে ভারতের যে দায়বদ্ধতা রয়েছে আদালত তা বিবেচনায় নিয়ে নাগরিকত্ব আইনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only