মঙ্গলবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

ক্যাম্পাস খালি করেসব পড়ুয়াদের বাড়ি পাঠানো হবেঃ ইউপি পুলিশ


পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক: আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস খালি করে সব ছাত্রছাত্রীকে আপাতত বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন যোগীর রাজ্যের পুলিশকর্তা ও পি সিং।

রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। দিল্লির জামিয়া মিল্লিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের মতো উত্তরপ্রদেশের আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারাও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে মিছিল বের করেছিল। সেই মিছিল পুলিশ বাধা দেয় বলে অভিযোগ। যা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এই প্রসঙ্গে পুলিশ সুপার ও পি সিং বলেন, আমরা আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় খালি করে দিচ্ছি। সব পড়ুয়াদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’ তবে পুলিশের বিরুদ্ধে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে, তা অবশ্য খারিজ করে দিয়ে তিনি বলেন, ‘এমন কোনও খবর আমরা পাইনি।’

জানা গিয়েছে, এই সংঘর্ষের ঘটনায় ৩০ জন পড়ুয়া জখম হয়েছে। পাশাপাশি, ১০ জন পুলিশকর্মীও জখম হয়েছেন। শহরে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে।

পুলিশকর্তা আরও জানান, প্রায় ১৫ জন ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার হুঁশিয়ারি, যারা হিংসায় জড়িত ছিল তাদের প্রত্যেককে আমরা চিহ্নিত করব। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেব। উল্লেখ্য, রবিবার মাঝরাতের কিছু আগে শহরজুড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার পরই আলিগড় ক্যাম্পাসে ঢোকে পুলিশের দাঙ্গা-বিরোধী শাখা। দাবি, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুরোধেই নাকি ক্যাম্পাসে পুলিশ ঢোকে।

পুলিশকর্তার দাবি, তাঁরা অত্যন্ত সংযতভাবেই পড়ুয়াদের সঙ্গে ব্যবহার করেছেন। তাঁর কথায়, ‘আমরা চরম সংযম দেখিয়েছি। আমরা কখনও কোনও হস্টেলে ঢকিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আমাদের শক্তি প্রয়োগের অনুমতি দেন। পরিস্থিতি যতক্ষণ না পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছিল, ততক্ষণ পর্যন্ত নীরব দর্শকের মতোই ছিলাম।
   

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only