বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২০

চাকমা শরণার্থীদের নাগরিকত্ব প্রদানের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই চলবে : পেমা খান্ডু


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  অরুণাচল প্ৰদেশের মুখ্যমন্ত্ৰী পেমা খান্ডু বলেছেন, রাজ্যে চাকমা ও হাজং শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিরুদ্ধে তাঁর সরকার সব ধরণের প্ৰস্তুতি নিয়ে আইনি লড়াই করবে। রাজ্য বিধানসভায় এক প্রশ্নের জবাবে বুধবার তিনি ওই মন্তব্য করেন।

মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু বলেন,  ১৯৯৬ সালের ৯ জানুয়ারি শীর্ষ আদালতের এক রায়ের ভিত্তিতে রাজ্য সরকার রাজ্যের চাংলাং, নামসাই এবং পাপুমপারে জেলায় বাসরত  চাকমা-হাজং শরণার্থীদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা, স্কুল, বিদ্যুৎ, পানি ইত্যাদির মতো ন্যূনতম সু্যোগ সুবিধা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে।
সংশোধনী নাগরিকত্ব আইন ‘সিএএ’/‘ক্যা’ কার্যকরী হওয়ার পরে চাকমা-হাজং শরণার্থীরা নিজেদেরকে রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করার সম্ভাবনা সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্য সরকার এর বিরুদ্ধে সমস্ত ধরণের প্ৰস্তুতি নিয়েই আইনি লড়াই করবে।

তিনি বলেন, চাকমা ও হাজংদের নাগরিকত্বের সমস্ত আবেদনে ‘নেতিবাচক মন্তব্য’ করা হয়েছে। কিন্তু বিষয়টি এখন স্বরাষ্ট্ৰ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে। ২০১৫  সালের ১৭ সেপ্টেম্বর শীর্ষ আদালতের নির্দেশিকা আনু্যায়ী শরণার্থীদের মোট ৪ হাজার ৬৩৭ টি নাগরিকত্বের আবেদনে রাজ্য সরকার ‘নেতিবাচক’ মন্তব্য করে তা স্বরাষ্ট্ৰ  মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে। 

চাংলাং, নামসাই ও পাপুমপারে এই তিন জেলার জেলা প্রশাসকদের জরিপে চাকমা ও হাজংদের মোট জনসংখ্যা ৬৫ হাজার ৮৭৫ জন। এবং রাজ্যে মোট ৭ হাজার ৭২ জন তিব্বতী শরণার্থী রয়েছে বলেও মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only