রবিবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২০

প্রশিক্ষণরত সৌদি সেনাদের সামরিক ঘাঁটি থেকে বহিষ্কার করছে আমেরিকা



ওয়াশিংটন, ১২ জানুয়ারি: সম্প্রতি ফ্লোরিডার নৌঘাঁটিতে বন্দুক হামলার পর মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে সৌদি সেনাদের প্রশিক্ষণ নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়ে ছিল পেন্টাগণ। এবার মার্কিন সেনাঘাঁটিগুলির সুরক্ষা দিকে তাকিয়ে প্রশিক্ষণরত সৌদি সেনা সদস্যদের বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর।

তাদের দাবি, বিষয়টি নিয়ে বহু আলোচনা হয়েছে। সেখান থেকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সৌদি সেনাদের কয়েক জন মধ্যে উগ্রবাদী আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে তাদের বিরুদ্ধে ফ্লোরিডায় হওয়া ওই হামলাকারীকে সহায়তা করার কোনও অভিযোগ আনা হয়নি।  

গত ৬ ডিসেম্বর ফ্লোরিডার পেনসাকোলা নৌঘাঁটির একটি শ্রেণিকক্ষে বন্দুক হামলা চালানো হয়। এতে তিন মার্কিন সেনা সদস্য নিহত হয়। বেশ কয়েকজন আহত হয়। পরে পালটা গুলিতে ২১ বছরের ওই হামলাকারী নিহত হয়। জানা যায়, ওই হামলাকারী সৌদি আরবের সেনা সদস্য ছিল। মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল সে।

ওই ঘটনার পর সম্ভব্য সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে তদন্ত শুরু করে এফবিআই। এরপর সৌদি আরবের বেশি কয়েকজন প্রশিক্ষণরত সেনাকে তাদের কোয়ার্টারে আটকে রাখা হয়। আমেরিকায় অবস্থানরত সৌদির আরবের প্রায় সাড়ে আটশো সেনাসদস্যের ওপর তদন্ত শুরু করে পেন্টাগন

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল রবার্ট কারভার জানান, পেনসাকোলা বিপর্যয়ের পর একটি পর্যালোচনা চালিয়ে সৌদি আরবের বিদেশি সামরিক শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি সীমিত করেছে প্রতিরক্ষা দফতর। এছাড়া বিদেশি শিক্ষার্থী নির্বাচন প্রক্রিয়া জোরালো করা হচ্ছে। তাই প্রশিক্ষণ স্থগিত রেখে নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাস্তবায়িত করছি।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only