রবিবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২০

পিকনিক নিয়ে উত্তেজনা এলাকায়!



দেবশ্রী মজুমদার, রামপুরহাট:

ফের উত্তপ্ত হল বীরভূমের মল্লারপুর থানার কোট গ্রাম। দুই পক্ষের সংঘর্ষে চারটি বাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। খবর পেয়ে বিশাল পুলিশ বাহিনী গ্রামে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা গিয়েছে, ঝিকড্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যা কোট গ্রামের বাসিন্দা মতি বিবির ছেলে জহরলাল শেখের সঙ্গে গ্রামের আফরোজা শেখের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। রবিবার গ্রামের মাঠে অনুগামীদের নিয়ে বনভোজন করছিলেন জহরলাল। বেলার দিকে গ্রামের ভিতর একটি বোমা ফাটায় আফরোজা। এতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গ্রাম। শুরু হয় দুই পক্ষের বোমাবাজি, গুলি। জহর অনুগামীর চারটি বাড়িতে বোমা ফাটানোর পাশাপাশি ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ। জহরলাল বলেন, “আমরা পিকনিক করছিলাম। কিন্তু ওরা আমাদের পিকনিক করতে দেবে না। আমাদের পিকনিক করতে দেবে না বলে গ্রামে বোমা ফাটায়। ওরা ক্ষমতা দেখাতে এসব করেছে। সাদেক বলে একজন গুলি চালায়”।

যদিও আফরোজা অনুগামী আসমা বিবি বলেন, “হঠাৎ ওরা আমাদের বাড়িতে আটটি বোমা ফাটায়। বাড়ি ভাঙচুর করে। জহরলাল, নাসিম শেখও নূর ইসলাম বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর চালায়। ওরা আমদের বাড়িতে ভাঙচুর চালাল”। গ্রামের বাসিন্দা খুরসাদ মীর বলেন, “শনিবার মল্লারপুরে দলের সভা ছিল। সেই সভা থেকে ফিরে এসে খাওয়াদাওয়া করেছিলাম। এদিকে এদিন জহরলাল একটি পিকনিক করছিল উত্তরপাড়ায়। এনিয়ে দক্ষিণ পাড়ার আফরোজ বোমা মারে। এনিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়”। ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছে আফরোজা। গ্রামে ব্যাপক উত্তেজনা রয়েছে। গ্রামে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only