শনিবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২০

মুসলিমরা ২০-৩০ সন্তানের জন্ম দিতে পারলে হিন্দুরাও ৫০ সন্তানের জন্ম দিতে সক্ষম: বিজেপি বিধায়ক

বেঙ্গালুরুর চামারাজপেটের ঈদগাহ ময়দানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে বিপুল সংখ্যক মানুষ জমায়েত হয়েছিলেন। এদের মধ্যে প্রায় সিংহভাগই ছিল মুসলিম। ওই সমাবেশে এক মুসলিম বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহকে তাদের বাবা ও ঠাকুরদাদাদের জন্ম সার্টিফিকেট দেখানোর দাবিতে সোচ্চার হন। একই দিনে বল্লারিতে এক নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের সমর্থনে আয়োজিত জনসভায় বিজেপি বিধায়ক বলেন, যদি মুসলিমরা ২০-৩০টা সন্তানের জন্ম দিতে পারে তাহলে হিন্দুরাও ৫০টা সন্তানের জন্ম দিতে পারবে। এভাবেই শাসক ও বিজেপি দলের মধ্যে বক্তৃতার লড়াই জমে উঠেছে বেঙ্গালুরুতে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ঈদগাহ ময়দানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে যে বিক্ষোভ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় তাতে অন্যতম বক্তা ছিলেন কর্নাটকের বর্তমান কংগ্রেস বিধায়ক ও প্রাক্তন মন্ত্রী জামির খান।

হাজার হাজার মানুষের জমায়েতে জামির খান বলেন, স্বাধীনতা সংগ্রামে সাতশোরও বেশি মুসলিম শহিদ হয়েছেন। দেশভাগের সময় এটা পরিষ্কার হয়ে গেছে যে, আমার এখানেই জন্মেছি, এখানেই মরব। তাই ধর্মভিত্তিক নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কোনও ভাবেই মানব না।

জামির খান ওই সভায় দাবি তোলেন, তাদের সম্বন্ধে বিস্তারিত তথ্য চাওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ তাদের নিজের তথ্য দেখান। যদি তাদের বাবা ও ঠাকুরদাদার জন্ম সার্টিফিকেট থাকে তাহলে তা প্রথমে তারা দেখান। তারপর আমাদের সার্টিফিকেট দেখাব। এদিন জামির খান স্মরণ করিয়ে দেন, তিনি চারবারের বিধায়ক ও দু'বারের মন্ত্রী। কিন্তু তার সার্টিফিকেট পেতে চার মাস লেগে গেছে। 
এদিনের বিক্ষোভ সমাবেশে স্বাধীনতা সংগ্রামী এইচএস দোরেস্বামী যোগ দিয়েছিলেন। তিনি বলেন, আমরা মুসলিম বা হিন্দু নই। আমরা সবাই ভারতীয় এবং আজও ভারতীয় হিসেবেই লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি।

অন্যদিকে, একই দিনে বল্লারিতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের পক্ষে জোর সওয়াল করেন বল্লারির বিজেপি বিধায়ক গলি সোমশেখর রেড্ডি। তিনি বলেন, এই আইন সংসদে পাস হয়েছে। তাই এই আইন লাগু করতে হিন্দুদের একতাবদ্ধ হওয়া প্রয়োজন। বক্তৃতার সময় তিনি, মুসলিমদের জন্মহার নিয়ে সমালোচনায় মেতে ওঠেন। এ প্রসঙ্গে বলেন, মুসলিমরা ২০  থেকে ৩০টি সন্তানের জন্ম দিতে পারলে হিন্দুরাও ৫০টা সন্তানের জন্ম দিতে পারবে। 

আর বেঙ্গালুরু সাউথের বিজেপি সাংসদ বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। তিনি হুমকি দেন, মাত্র পাঁচ শতাংশ মানুষ নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে পথে নামছে। যদি ৯৫ শতাংশ মানুষ বেরিয়ে পড়ে তাহলে ওই বিক্ষোভকারীরা ধুলিস্যাৎ হয়ে যাবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only