শুক্রবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২০

আরও একবার দেশের সবচেয়ে নিরাপদ শহরের স্বীকৃতি পেল কলকাতা

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর রিপোর্ট অনুযায়ী আরও একবার দেশের সবচেয়ে নিরাপদ শহরের স্বীকৃতি পেল কলকাতা।

পরপর দু’বছর ভারতের সবচেয়ে নিরাপদ শহরের তকমা পেল কলকাতা। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো প্রকাশিত ২০১৮ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, অপরাধের হার ভারতের অন্যান্য শহরের তুলনায় কলকাতায় অনেকটাই কম।

গোটা দেশের মোট ১৯টি বড় ও মেট্রো শহরে সংঘটিত অপরাধের হার যাচাই করে এই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো। রিপোর্ট অনুযায়ী, কলকাতায় সামগ্রিক অপরাধের হার ১৫২.২। প্রতি এক লক্ষ জনসংখ্যা পিছু সংঘটিত অপরাধের ভিত্তিতে ঠিক করা হয় এই হার। যেখানে রাজধানী দিল্লিতে অপরাধের সামগ্রিক হার ১৪৫৬.৭, চেন্নাইতে ৬৭৭.৮, মুম্বইতে ৩০৯.৯, সেখানে কলকাতায় অপরাধের হার চোখে পড়ার মতো কম।

খুন, খুনের চেষ্টা এবং অপহরণের মতো অপরাধও কমছে কলকাতায়। ২০১৮ সালে, কলকাতায় খুনের ঘটনা ঘটেছিল ৫৫টি। দিল্লি আর মুম্বইতে খুনের সংখ্যা যথাক্রমে ৪১৬ এবং ১৬৪। কলকাতায় যেখানে খুনের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে ১৪৩টি, দিল্লি ও মুম্বইতে এই সংখ্যাই যথাক্রমে ৪৭৩ এবং ২৮০। কলকাতায় অপহরণের ঘটনা ঘটেছে ৩৭৪টি। মুম্বইতে এই সংখ্যা ২,১৫৯।

নারীদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষাতেও গোটা দেশের মধ্যে সবার আগে কলকাতা। ২০১৭ সালের তুলনায় শহরে ধর্ষণের সংখ্যা কমেছে, কমেছে শ্লীলতাহানি ও হেনস্থার ঘটনাও। ২০১৮ সালে কলকাতায় শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে ১৫১টি। দেশের অন্যান্য শহরের তুলনায় যা চোখে পড়ার মতো কম। মুম্বইতে সংঘটিত শ্লীলতাহানির সংখ্যা ১,০৬৯।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only