বৃহস্পতিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২০

ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি হলেন দিলীপ



চিন্ময় ভট্টাচার্য 

প্রত্যাশামতোই ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি হলেন দিলীপ ঘোষ। বুধবারই তিনি দলের রাজ্য সভাপতি পদ মনোনয়ন পেশ করেছিলেন। বৃহস্পতিবার রাজ্য সভাপতি ঠিক করতে জাতীয় গ্রন্থাগারে সভার আয়োজন করেছিল রাজ্য বিজেপি। সেখানে বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এই বৈঠকেই দিলীপ ঘোষ সর্বসম্মতিক্রমে সভাপতি নির্বাচিত হন। তাঁর হাতে নতুন সভাপতি পদে সার্টিফিকেট তুলে দেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক মুরলীধর রাও। নতুন সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায়, ২০২৩ সাল পর্যন্ত দিলীপ ঘোষ রাজ্য বিজেপি সভাপতি থাকবেন।

ফের সভাপতি হওয়ার পর, ইতিমধ্যে দিলীপ ঘোষকে সংবর্ধনা দেওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছেন রাজ্য বিজেপির নেতাদের একাংশ। আজ বিকেল পাঁচটায় দলের রাজ্য অফিসে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব স্থির করেছেন। ফের রাজ্য সভাপতি হওয়ার ব্যাপারে দিলীপ ঘোষ অবশ্য গোড়া থেকেই আশাবাদী ছিলেন। গতকালই তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, তিনি নিজেই দলের কাছে ফের রাজ্য সভাপতি হতে চেয়ে আবেদন করেছেন। রাহুল সিনহার পর থেকে দিলীপবাবুই দলের রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। দলে তাঁর বিরোধী গোষ্ঠীর একাংশ অবশ্য দিলীপবাবুর বিরুদ্ধে গোষ্ঠী রাজনীতিতে ধুয়ো দেওয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই করে চলেছেন।

এর আগে রূপা গঙ্গোপাধ্যায় দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে এই গোষ্ঠী রাজনীতিতে ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ করেছিলেন। এর পর রূপাকে রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চার দায়িত্ব ছাড়তে হয়েছিল। শুধু রূপাই নন। দিলীপ ঘোষের সঙ্গে সম্প্রতি মতানৈক্যে জড়িয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে চন্দ্র বসু, বাবুল সুপ্রিয় এবং স্বপন দাশগুপ্তর মতো রাজ্য বিজেপির নামী নেতাদের। তবে, প্রতিবারই সাফল্য দিলীপ ঘোষের বিরোধীদের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে। এবারও বিধায়ক, সাংসদ পদে জয়, রাজ্যের গত লোকসভা নির্বাচনে সাফল্য, দিলীপ ঘোষের ফের রাজ্য সভাপতি হওয়ার পথ নিষ্কণ্টক করল।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only