বৃহস্পতিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

গোমাংস খেয়ে মানুষের শাস্তি হলে বাঘের নয় কেন, প্রশ্ন গোয়ার বিধায়কের


এতদিন মানুষের গো-হত্যার শাস্তি দিতে তৎপর ছিল একশ্রেণির মানুষ। কিন্তু এবার বনের পশু বাঘকেও সেই আওতায় আনার প্রস্তাব গোয়ার এনসিপির এক বিধায়কের। ওই এমএলএ-র অভিযোগ– যখন একজন মানুষ গরুর মাংস খাচ্ছে– তখন তার শাস্তি হচ্ছে। বাঘে গরু খেলে তার শাস্তি কী?

বিধানসভায় এই আলোচনার পিছনে রয়েছে অবশ্য অন্য ঘটনা। বেশকিছু দিন থেকেই বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোয়ার মহাদায়ী বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যে। বন থেকে বাঘ এসে গ্রামবাসীদের গরু খেয়ে ফেলছে– এমন অভিযোগ বারবার উঠছিল এলাকায়। তাই গ্রামবাসীরাও তক্কে তক্কে ছিল। গত মাসে একটি বাঘিনী ও তার তিনটি শাবককে পিটিয়ে মারে স্থানীয় পাঁচজন বাসিন্দা। দেশে বাঘের সংখ্যা এমনিতেই কমে যাচ্ছে বলে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা সরব হয়েছেন। এক লহমায় এভাবে চারটি বাঘ মারা হলে ব্যাপারটি মিডিয়ায় আলোড়ন তোলে। আর এটাকে হাতিয়ার করেই গোয়া বিধানসভায় বিরোধী নেতা দিগম্বর কামাত বিষয়টি নিয়ে সোচ্চার হন গত বুধবার। এ প্রসঙ্গেই বাঘ-গরু-মানুষকে এক ঘাটে নিয়ে আসেন এনসিপির বিধায়ক চার্চিল আলেমেয়ো। তিনি বলেন– কোনও মানুষ গোমাংস খেলে যদি শাস্তি পায়– তা হলে বাঘের কী হবে? গরু খাওয়ার জন্য মানুষকে পিটিয়ে মারা হচ্ছে। বাঘেরও শাস্তি হওয়া উচিত বলে তিনি দাবি করেন। তিনি আরও বলেন– বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের স্বার্থে বাঘ গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু মানুষের কথ ভাবলে– গরু বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কারণ– গরুপালন করে বহু মানুষ রোজগার করেন। হালচাষ করতেও গরু দরকার হয়। তাই এই ঘটনার সঙ্গে মানুষের যে স্বার্থ জড়িত তা যেন উপেক্ষা না করা হয় বলে তিনি মন্তব্য করেন। 

বাঘ-গরু-মানুষ বিষয়ক বিতর্কের উত্তর দিতে গিয়ে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত জানান– তাদের গৃহপালিত পশুকে খেয়ে ফেলায় গ্রামবাসীরা বাঘগুলিকে পিটিয়ে মেরেছে। তবে যেসব গ্রামবাসীদের গরু বাঘে খেয়েছে– তাদের ক্ষতিপূরণ দেবে তাঁর সরকার– জানিয়েছেন সাওয়ান্ত। তবে নিজের দাবিতে অনড় এনসিপির এমএলএ চার্চিল আলেমেয়ো। গোয়া বিধানসভার রসিক বিধায়কদের মন্তব্য– ‘চার্চিল তো একদিক দিয়ে ঠিকই বলেছে। ফ্রিজে মাংস ছিল এই সন্দেহে দাদরির আখলাককে পিটিয়ে মারা হয়েছে। আরও অনেককেই সন্দেহ করে হেনস্থা করা হয়েছে গরুর মাংস খায় কি না তা নিয়ে। মানুষ যদি গরু খেয়ে অপরাধী হয় বিজেপির শাসনে– তবে বাঘ নয় কেন?’  

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only