মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

বিহারের হোমে ধর্ষণকাণ্ডে ব্রজেশ ঠাকুরের যাবজ্জীবন সাজা

বিহার শেল্টার হোম ধর্ষণ কাণ্ডে দোষী ব্রজেশ ঠাকুরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল আদালত। মঙ্গলবার দিল্লির একটি আদালত এই রায় দিয়েছে। মজফফরপুরের হোমটির মালিক ছিল এই ব্রজেশ। এদিন আর এক অভিযুক্ত ভিক্কিকে প্রমাণের অভাবে বেকসুর খালাস দিয়েছে কোর্ট। কর্তব্যে গাফিলতি ও ধর্ষণে সহযোগিতার অপরাধে রোজি রানি ছাড়া ৮জনকে সাজা দেওয়া হয়েছে। পকসো আইনে মামলা চলছিল ব্রজেশের বিরুদ্ধে। সে শারীরিক ও যৌন হেনস্থা করত শেল্টার হোমের মেয়েদের। এই ব্রজেশই একবার বিহারের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হয়েছিল। এ হেন ব্রজেশ এদিন যাবজ্জীবন সাজা পেল। গত ২০ জানুয়ারি ব্রজেশকে দোষী সাব্যস্ত করেছিল আদালত।

 বহুদিন ধরেই হোমের মেয়েদের উপর অত্যাচার চলছিল অভিযোগ উঠেছিল। ধর্ষণ– মারধর চলত ভয় দেখিয়ে। ২০১৮-এর ২৬ মে টাটা ইন্সটিটিউট অব সোশ্যাল সায়েন্সেস (টিস) বিহার সরকারকে এ ব্যাপারে অভিযোগ জানালে ব্যাপারটি সকলের নজরে আসে। নাবালিকা মেয়েদের এমন হেনস্থার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আবেদন জানায় টিস। তারপর থেকেই মামলা ও তদন্ত চলছিল ঘটনাটি নিয়ে। তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল সিবিআইকে।   

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only