সোমবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

রোজভ্যালি কাণ্ডে ৭০ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

পুবের কলম প্রতিবেদক:­ এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট(ইডি) রোজভ্যালি কাণ্ডে ৭০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করল। সেই সঙ্গে পূর্ব মেদিনীপুর, নিউটাউনের বেশ কিছু জমিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।  এই সঙ্গে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে সেন্ট জেভিয়ার্স ও কেকেআরের ব্যাঙ্ক আকাউন্টও। উল্লেখ্য, এ পর্যন্ত রোজভ্যালি মামলায় এই সংস্তার ৪৭৫০ কোটি টাকার সম্পত্তি এখনো পর্যন্ত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। 

ইডি সূত্রে সোমবার জানা গিয়েছে, রোজভ্যালি সংস্থার বেশ কয়েক কোটি টাকার নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কেকেআরের বিরুদ্ধে। একই অভিযোগে জড়িয়ে পড়েছে ঐতিহ্যমন্ডিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সেন্ট জেভিয়ার্সের নামও।  এই দুই সংস্থার মোট ৭০ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এরমধ্যে নগদে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে প্রায় ১৬.২ কোটি টাকা। 

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে বিতর্কিত এই অর্থলগ্নি সংস্থার সঙ্গে নাম জড়িয়েছিল কেকেআরের।  সে সময় কেকেআরের অন্যতম স্পনসর ছিলেন রোজভ্যালি সংস্তার কর্ণধার গৌতম কুন্ডুর। ২০১২ ও ২০১৩ সালের আইপিএলে কেকেআরের জার্সিতে রোজভ্যালির লোগোও দেখা গিয়েছিল । চুক্তি অনুযায়ী, এই দু-বছরে ১২ কোটি টাকা সরকারি ভাবে নাইট রাইডার্সকে দিয়েছিল রোজভ্যালি সংস্থা। কিন্তু, ইডির অভিযোগ এই ১২ কোটির হিসাব ছাড়াও দুই সংস্থার মধ্যে অর্থ বিনিময়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে  তদন্তও শুরু করেছে ইডি। কেকেআরের সিইও বেঙ্কি মাইশোরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কেকেআরের কলকাতা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কয়েক কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করে করেছে ইডি। 

অন্যদিকে, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজকেও অনুদান দিয়েছিল রোজভ্যালি। সেই টাকার কিছু অংশও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে দাবি ইডি সুত্রের। এছাড়াও, রামনগর এবং জ্যােতিবসু নগরের মতো এমন একাধিক জায়গায় প্রচুর স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি কেনা হয়েছিল রোজভ্যালির টাকায়। সেই সম্পত্তিও ইতিমধ্যেই বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only